জঙ্গিদের হাতে নিহত হন স্বামী, বদলা নিতে সেনাবাহিনীতে যোগদান স্ত্রীর

|

ছবি: সংগৃহীত।

২০১৮ সালের ১১ এপ্রিল জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদীদের গুলিতে মারা যান ভারতের সেনা অফিসার দীপক নেনওয়াল। স্ত্রী জ্যোতি তাদের নয় বছরের মেয়ে লাবণ্য এবং সাত বছরের ছেলে রেয়াংশকে নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন তখনই। তবে ঘুরে দাঁড়ান তিনি। স্বামীর পথেই হাঁটতে কঠোর পণ করে বসেন জ্যোতি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

সম্প্রতি চেন্নাইয়ের অফিসারস ট্রেনিং অ্যাকাডেমি থেকে পাশ করেছেন জ্যোতি। গর্বিত এ সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী এখন নিজেই ভারতীয় সেনা বাহিনীর লেফটেনেন্ট পদে নিয়োগ পেয়েছেন। ১১ মাস হাড়ভাঙা পরিশ্রম, প্রশিক্ষণের চরম কঠিন ধাপগুলো পার করে এখন মাথা উঁচু করে স্বামীর মৃত্যুর বদলা নিতে চান তিনি। সন্ত্রাস মুক্ত করতে চান ভারতকে।

তবে স্বামীর মৃত্যুর পর একেবারেই ভেঙে পড়েছিলেন জ্যোতি। তখন তার নিজের কোনো আয় ছিল না। ফলে ছেলে-মেয়েকে একা কীভাবে বড় করবেন এই দুঃশ্চিন্তায় শেষের দিকে শরীরও ভাঙতে শুরু করে তার। পাশে এসে দাঁড়ায় পরিবার। তাদের উৎসাহেই আয়ের পথে আসার চিন্তা করেন জ্যোতি। তবে তার সিদ্ধান্তটা ছিল একদম ভিন্নরকম।

সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন জ্যোতি। তবে কীভাবে শুরু করবেন তার সঠিক দিক নির্দেশনা পাচ্ছিলেন না। পরে পাশে এসে দাঁড়ান পরিচিত দুই সেনা কর্মকর্তা। তাদের পরামর্শেই ভর্তি হন চেন্নাইয়ের অফিসারস ট্রেনিং অ্যাকাডেমিতে। স্বামীর মৃত্যুর তিন বছর পর এখন নিজেই ভারতীয় সেনাবাহিনীর সদস্য জ্যোতি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply