আফগানিস্তানে প্রাণ গেছে ৩৩ হাজার শিশুর, বাড়ছে শিশুশ্রম

|

ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে শিশু শ্রমিকের সংখ্যা। দেশটির মোট শিশুর ২০ শতাংশই জড়িয়েছে নানা কাজের সাথে। এমন তথ্য জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের। সংস্থাটি জানিয়েছে, আফগানিস্তানে গেল ২০ বছরে মার্কিন অভিযানে প্রাণ গেছে ৩৩ হাজার শিশুর। ইউনিসেফের দাবি, দেশটির যুদ্ধ পরিস্থিতি এবং মহামারির কারণে বেকার হয়ে পড়েছে বহু মানুষ। এতেই বাড়ছে শিশু শ্রমিক।

যে বয়সে হাতে খেলনা থাকার কথা, সেখানে কাঁধে করে রুটি বিক্রি করা এখন আফগান অনেক শিশুরই জীবন বাস্তবতা। অর্থনৈতিক সংকটে লাখ লাখ শিশু জড়িয়ে পড়েছে ঝুঁকিপূর্ণ নানা কাজে। তেমন এক শিশুর ভাষ্য এমন, আমি ফুটবল খেলতে পছন্দ করি। কিন্তু কী করবো? বাবার কাজ চলে গেছে তাই রুটি বিক্রি করছি। সবই কিনে খেতে হয়। এমনকি ভাড়া বাসায় থাকতে হয়, তাই পরিবারের খরচ জোগাতেই কাজ করছি।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ জানায়, শিশুরা সবচেয়ে বেশি জড়িত জুতা পলিশ, আবর্জনা কুড়ানো, ফেরি করে রাস্তায় বিভিন্ন পণ্য বিক্রির মতো কাজে। ইউনিসেফের তথ্য অনুযায়ী, আফগানিস্তানে গেল ২০ বছরে মার্কিন অভিযানে প্রাণ গেছে ৩৩ হাজার শিশুর। যাদের গড় বয়স মাত্র ৫ বছরের মধ্যে। এ ছাড়া বর্তমানে মানবিক সংকটে রয়েছে ১ কোটির বেশি শিশু। যার মাঝে ৩২ লাখের বেশি শিশু ভুগছে খাদ্যাভাব ও অপুষ্টিতে। এর মাঝে ১১ লাখের অবস্থাই গুরুতর। মূলত, তালেবান সরকার গঠনের পর থেকে বন্ধ হয়ে গেছে বিদেশি অনুদান। এতে চরম আকার ধারণ করেছে অর্থনৈতিক সংকট।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply