চতুর্থ মামলাতে লালুর ১৪ বছরের জেল

|

দুমকা ট্রেজারি থেকে তিন কোটি রুপিরও বেশি অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অপরাধে ভারতের রাষ্ট্রীয় জনতা দলের প্রধান সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ যাদবকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

এটি পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির চতুর্থ মামলা। এর আগে তিনটি মামলাতেই দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন লালু। ২০১৭ সালের ডিসেম্বর থেকে বীরসা মুণ্ডা জেলে কারাদণ্ড খাটছেন তিনি।

শনিবার ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের রাজধানী রাঁচীর বিশেষ সিবিআই আদালত চতুর্থ মামলার রায় ঘোষণা করে।

আদালত সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, লালুপ্রসাদকে দেশটির ট্রেজারি আইনের ১২০বি (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র) ধারা ও দুর্নীতি দমন আইনে সাত বছর করে মোট ১৪ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেয় আদালত।

পাশাপাশি ওই দু’টি ধারায় লালুকে ৩০ লাখ করে মোট ৬০ লাখ টাকা জরিমানা, অথবা অনাদায়ে এক বছর করে কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে বলে জানিয়েছে আদালত।

সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত গত ১৯ মার্চ দুমকা ট্রেজারি শীর্ষক এই মামলায় লালুপ্রসাদসহ ১৯ জনকে দোষী সাব্যস্ত করেছিল।

এই মামলায় লালুপ্রসাদ যাদবের সাজা হলেও খালাস পেয়েছেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জগন্নাথ মিশ্রসহ ১২ জন।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply