শাশুড়ির সঙ্গে বন্ধুত্ব জমাবেন কীভাবে?

|

প্রতীকী ছবি।

শাশুড়ি সাথে বন্ধুত্ব! এটা বেশ দুঃসাধ্য বলে মনে হবে অনেকের কাছে। বউ-শাশুড়ির সম্পর্কে বৈরিতা থাকবে এটা ধরেই নেন অনেকে। এমনই ধারণা যুগ যুগ ধরে প্রচলিত আমাদের সমাজে।

কিন্তু শাশুড়ি মানেই কি চোখা কথা, বাঁকা মন্তব্য? তেমনটা মোটেই নয়। বরং বিয়ের আগে থেকেই বহু ক্ষেত্রে এমন ধারণা তৈরি করে দেওয়া হয়, যাতে শাশুড়ি আর বউমার মধ্যে কখনও বন্ধুত্ব হওয়ার সুযোগই ঘটে না। তাই সময়ের সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে থাকে। ভুল বোঝাবুঝির পরিস্থিতি তৈরি হয়। এই অবস্থা এক সময়ে এমন জায়গায় পৌঁছে যায় যে, আর কাছে আসার সুযোগ থাকে না।

কিন্তু চাইলে প্রথম থেকেই সচেতন ভাবে শাশুড়ি-বউ একে অপরের কাছে আসতে পারেন। নিখাদ বন্ধুত্ব করে নিতে পারেন।

কীভাবে বন্ধু হয়ে উঠতে পারেন শাশুড়ি আর বউ?
১) মাঝেমধ্যে একসঙ্গে রান্না করে দেখুন। তাতে একে অপরের কাছে আসা যাবে। কোন ফোড়ন দেবেন, কী ভাবে সবজি কাটবেন, তা নিয়ে আলোচনা করুন।

২) একসঙ্গে ঘুরতে যেতে পারেন মাঝেমাঝে। একটু আধটু কেনাকাটাও করতে যাওয়া যায়। তার পরে চা-কফি নিয়ে কিছুক্ষণ বসে গল্প করুন।

৩) স্বামীর ছোটবেলার গল্প শুনতে চান। আপনার স্বামী কী খেতে ভালবাসেন, কত বার মায়ের কাছে বকুনি খেয়েছেন এইসব জানতে চান। এতে অনেকটা দূরত্ব ঘুচে যাবে।

৪) ছোটছোট বিষয়ও মাঝেমধ্যে শাশুড়ির পরামর্শ নিন। এর মাধ্যমে তিনি বুঝতে পারবেন, শাশুড়িকে আপনি গুরুত্ব দিচ্ছেন। মনও ভাল হবে। আপনার ভাল-মন্দ নিয়ে ভাবনাও লেগে থাকবে তার।

৫) শাশুড়ির সম্পর্কেও জানতে চাইবেন। তিনি কী পছন্দ করেন, কোন কাজ করতে ভালো লাগে, সেসব নিয়ে আলোচনা করুন।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply