মেয়র পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত জাহাঙ্গীর

|

জাহাঙ্গীর আলম সরকার। ফাইল ছবি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটূক্তির অভিযোগে আওয়ামী লীগ থেকে আজীবন বহিষ্কার হওয়া গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে মেয়র পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এ তথ্য জানান। এর আগে গাজীপুর সিটি করপোরেশনে তিন সদস্যের প্যানেল মেয়র গঠন করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, আজকের মধ্যেই মেয়র পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করার প্রজ্ঞাপন জারি হবে। সেখানে একজনকে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে। কাউন্সিলরদের মধ্যে থেকে যে জ্যৈষ্ঠ সে প্রথম মেয়র হবে।

মন্ত্রী আরও জানান, জমি দখলসহ তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ মন্ত্রণালয়ে জমা হয়েছে। এসব বিষয়ে তদন্তের জন্য তিন সদস্যর তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। যেখান নেতৃত্ব দিবেন এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাকিম বিল্লাহ ফারুকি। অভিযোগগুলো প্রমাণিত হলে তাকে মেয়র পদ থেকে স্থায়ীভাবে অপসারণ করা হবে।

এর আগে গত সোমবার জাহাঙ্গীর আলমের মেয়র পদ থাকবেন কিনা সে বিষয়ে দু’একদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানানোর কথা জানিয়েছিলেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

গত ১৯ নভেম্বর প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিলসহ আওয়ামী লীগ থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে। সেইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশও দেয়া হয়।

এর আগে এক বিতর্কিত ফুটেজ প্রকাশের জের ধরে জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে দলীয় অন্দরমহলে ওঠে সমালোচনার ঝড়। অভিযোগ ওঠে মহান মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তির। গাজীপুরের সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেলসহ বর্ষীয়ান নেতা আজমত উল্লাহ ভুঁইয়াকে নিয়েও কিছু স্পর্শকাতর মন্তব্য তিনি করেন। এসবের জেরে বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল তার বিরুদ্ধে দলের ব্যবস্থা নেয়ার গুঞ্জন।

উল্লেখ্য, জাহাঙ্গীর আলম গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। রাজনীতির বাইরে কাপড়-ব্যবসার সাথে যুক্ত জাহাঙ্গীর ‘অনারেবল টেক্সটাইল অ্যান্ড কম্পোজিট লিমিটেড’ এবং ‘জেড আলম অ্যাপারালস’-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply