পঞ্চগড়ে আ’লীগের গলার কাঁটা বিদ্রোহী প্রার্থীরা

|

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের দুটি উপজেলার ১৫ টি ইউনিয়নে উৎসবমূখরভাবে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য প্রার্থীরা। ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে নির্বাচনী প্রচারণা। লিফলেট, ব্যনার মাইকিংয়ের সাথে উঠান বৈঠক পথসভায় সরগরম প্রত্যন্ত গ্রামগুলো। চায়ের দোকান হাট বাজারসহ সর্বত্রই এখন ভোটের আলোচনা। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন সাথে দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি।

নৌকার প্রার্থীদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র ও বিদ্রোহী প্রার্থীরা প্রচারণায় বাধা দেয়ার অভিযোগ এনেছেন। এদিকে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য ভোট গ্রহণের প্রস্তুতি নিয়েছে বলে জানান নির্বাচন কর্মকর্তারা।

আগামী ২৮ নভেম্বর পঞ্চগড়ের সদর ও আটোয়ারী উপজেলার মোট ১৫ ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সদর উপজেলায় মোট  ৫৪১ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৫৪ জন । আটোয়ারি উপজেলায় ২২৪ জন প্রার্থী এদের মধ্যে ১৯ জন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন ভোটের মাঠে।

এদিকে ক্ষমতাসীন দলের সাথে চেয়ারম্যান পদে ইউনিয়নগুলোতে বিদ্রোহী প্রার্থীরাও প্রচারণা চালাচ্ছেন। ভোটের মাঠ দখলে মরিয়া হয়ে উঠেছেন সকল দলের প্রার্থীরা। ভোটের মাত্র বাকি চারদিন। শেষ মুহূর্তে কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। চেয়ারম্যান প্রার্থীরা একে অপরের বিরুদ্ধে পাল্টা পাল্টি অভিযোগও করছেন।

এখন পর্যন্ত বিদ্রোহীদের বহিষ্কার না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা। তারা বলছেন,  বিদ্রোহীরাই তাদের জয়ের পথে বাধা। বিদ্রোহীদের বহিষ্কারের দাবীও তুলছেন নৌকার মাঝিরা। এখানে বিদ্রোহী প্রার্থীরাও শক্ত অবস্থানে রয়েছেন, অবাধ নিরপেক্ষ ও নিরবিচ্ছিন্ন ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হলে নৌকার প্রার্থীরা ধরাশয়ী হবেন বলে দাবী বিদ্রোহীদের।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply