ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার লক্ষ্যে মমতা! সম্ভাবনা নিয়ে মুখ খুললেন নেত্রী

|

ছবি: সংগৃহীত।

পশ্চিমবঙ্গে ক্রমশ শক্তি বৃদ্ধি করছে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেস। এই রাজ্যে বিজেপি ছেড়ে একে একে তাবড় নেতারা যোগ দিয়েছেন মমতার ঘাসফুল প্রতীকে। তবে এবারে রাজ্য ছাড়িয়ে দিল্লির দিকে নজর মমতার, জোর গুঞ্জন চলছে এমনটাই। শোনা যাচ্ছে, এবারে সরাসরি দেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছেন মমতা। আর এ নিয়ে মোদির সাথে আলোচনা শেষে মুখ খুললেন তিনি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) দিল্লিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে বৈঠকে বসেন মমতা। পশ্চিমবঙ্গের উন্নতির পাশাপাশি সীমান্ত এলাকায় বিএসএফের ক্ষমতা বৃদ্ধি নিয়েও আলাপ করেন তিনি। আলোচনা শেষে বের হলে এক সাংবাদিক মমতাকে প্রশ্ন করেন, কেন্দ্রে আপনার দল যদি ক্ষমতায় আসে, তবে প্রধানমন্ত্রী কে হবেন, আপনি?

এর জবাবে মমতা বলেন, এসব প্রশ্ন করার সময় এখনও আসেনি। আগে মানুষের জন্য কাজ করতে দিন। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রশ্ন এখনও অনেক দূর।

মূলত, গোটা ভারতের শাসক হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ তৃণমূল কংগ্রেসের জন্য আকাশ কুসুম কল্পনা। এরজন্য মমতার প্রয়োজন হবে আঞ্চলিক দলগুলোকে, তৈরি করতে হবে নতুন জোট। তবে এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মমতার নাম এলে এই জোট তৈরির আগেই ভেঙে যাওয়ার জোর আশঙ্কা আছে। এ কথা মাথায় রেখেই প্রধানমন্ত্রীত্বের প্রশ্ন এড়িয়ে গেলেন মমতা।

তবে বর্তমানে মমতাকে প্রধানমন্ত্রী করাই তৃণমূলের প্রধান লক্ষ্য বলে জানা যাচ্ছে। এর জন্য ইন্ডিয়ান পলিটিক্যাল অ্যাকশন কমিটির (আইপিএসি) মাধ্যমে গোটা ভারত জুড়ে বিভিন্ন কাজ করছে মমতার দল। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন সভা সমাবেশে সরাসরি মমতাকেই পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী বলে তৃণমূলের তরফে দাবি করা হচ্ছে। তবে এ নিয়ে নিজে এখনই মুখ খুলবেন না মমতা।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply