এশিয়ার বাজারে তেলের দাম কমলে দেশেও সমন্বয় করা হবে: বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

|

ছবি: সংগৃহীত।

এশিয়ার বাজারে তেলের দাম কমলে দেশেও তা সমন্বয় করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। আন্তর্জাতিক বাজারে দর ওঠানামার দিকে সরকার সতর্ক নজর রাখছে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিকেলে এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

এদিকে, গত সপ্তাহে বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের দামে বড় ধরনের পতন ঘটেছে। এক সপ্তাহের ব্যবধানে অপরিশোধিত তেলের দাম কমেছে প্রায় ছয় শতাংশ। এ নিয়ে টানা দু’সপ্তাহ তেলের দাম কমেছে বিশ্ববাজারে। ফলে এক মাসের মধ্যে তেলের দাম কমেছে প্রায় ৯ শতাংশ।

তবে এর আগে, কয়েক দফা মূল্য বেড়ে চলতি বছরের অক্টোবরে বিশ্ববাজারে প্রতি ব্যারেল অপরিশোধিত তেলের দাম ছাড়িয়ে যায় ৮৪ ডলার। এর ফলে গত সাত বছরের রেকর্ডে সর্বোচ্চ দামে উঠে আসে তেল। এর জেরে গত ৩ নভেম্বর বাংলাদেশেও ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারপ্রতি ‌১৫ টাকা বাড়ানো হয়। বেড়ে যায় যানবাহনের ভাড়াও।

তবে বিশ্ব বাজারে তেলের দাম কমলে দেশেও তা সমন্বয় করা হবে বলে এর আগেও জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। গত ৬ নভেম্বর সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছিলেন, বিশ্ববাজারে দাম কমার সাথে সাথে দেশে তা সমন্বয় করা হবে। এ নিয়ে মঙ্গলবার প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য, এশিয়ার বাজারে দাম কমলেই দেশে জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয় হবে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply