ভবন সরাতে এক বছর সময় চায় বিজিএমইএ


উত্তরায় ৫ বিঘা জমির ওপর নির্মাণাধীন বিজিএমইএ’র নতুন ভবনের কাজ শেষ হতে আরও এক বছর সময় লাগবে। তাই রাজধানীর হাতিরঝিল এলাকা থেকে কার্যালয় সরাতে আদালতের কাছে আরও এক বছর সময় চেয়েছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন শীর্ষ সংগঠনটি।

শনিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। জানান, জমি পেতে দেরি হওয়ায় ভবন নির্মাণে দেরি হচ্ছে। তাই আরও এক বছর এই ভবনে থাকার জন্য আদালতের কাছে আবেদন করেছেন তারা। একইসাথে, বিজিএমইএ’র যেসব সদস্য ভবনের অন্য ফ্লোরগুলি কিনেছেন, তাদের জন্য নতুন ভবনে স্থানান্তরের কাজ সহজ হবে বলেও জানান সিদ্দিকুর রহমান। রফতানিমুখী এই খাতে প্রতিদিনের কাজের গুরুত্ব বিবেচনায়, উচ্চ আদালত বর্ধিত সময় মঞ্জুর করবে বলে আশাবাদি বিজিএমইএ সভাপতি।

বিজিএমইএর সভাপতি আরও বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের রায়ের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে বিজিএমইএর দাপ্তরিক কাজ সুচারুভাবে করার জন্য একটি ভবন ভাড়া করার চেষ্টা করেছি আমরা। তবে ৩০০ কর্মীর কাজ করার মতো উপযুক্ত ভবন না পাওয়ার কারণে মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশমতো নির্ধারিত সময়ে ভবনটি স্থানান্তর করতে পারিনি। যা-ই হোক, আমরা জমি পেয়েছি। কাজও শুরু করেছি।’

গত মার্চ মাসে রাজধানীর হাতিরঝিল এলাকা থেকে কার্যালয় সরাতে বিজিএমইএ-কে ছয় মাস সময় বেঁধে দিয়েছিলেন আদালত। সেই হিসাবে ১১ সেপ্টেম্বর সেই সময় শেষ হওয়ার কথা। তবে গত ২৩ আগস্ট এক বছর সময় চেয়ে আদালতে আবেদন করে বিজিএমইএ।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply