ট্রাকের চাকা পাংচার হয়ে ধাক্কা অটোরিকশায়, এইচএসসি পরীক্ষার্থীসহ নিহত ২

|

ছবি: সংগৃহীত।

পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনায় ট্রাক-অটোরিকশার সংঘর্ষে এক শিশুসহ দু’জন মারা গেছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। নিহতদের মধ্যে আছেন একজন এইচএসসি পরীক্ষার্থীও।

শনিবার (১৩ নভেম্বর) দুপুর ২টার দিকে পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের সদর উপজেলার মালিগাছা মন্ডলের ঢাল নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, চলন্ত ড্রাম ট্রাকের চাকা পাংচার হয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন চালক। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা সিএনজি চালিত অটোরিকশাকে ধাক্কা দিলে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, চাটমোহর উপজেলার পাচুরিয়া গ্রামের ইউপি সদস্য মতিউর রহমানের মেয়ে ও পাবনা কলেজের এইচএসসি পরিক্ষার্থী মতিয়া বিশ্বাস মিথি (১৮) ও সদর উপজেলার চরঘোষপুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রহমান (২)। আহতদের উদ্ধার করে পাবনন জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পাবনা থেকে ঈশ্বরদীর দিকে ছেড়ে যাওয়া দ্রুতগ্রামী একটি ড্রাম ট্রাকের চাকা মালিগাছা মন্ডলের ঢালে এসে পাংচার হয়। এতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানের সংঘর্ষ ঘটলে শিশুসহ ১২ জন আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দুইজন মারা যান।

ঘটনাস্থলে উত্তেজিত জনতা ট্রাক ভাঙচুর করার চেষ্টা করলে পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিস এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় চালক ও হেলপার পালিয়ে গেলেও ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে।

নিহতের বাবা চাটমোহরের ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মতিউর রহমান বলেন, আমার এক ছেলে এক মেয়ে। মেয়েটি বড় সন্তান। সকালে মেয়েসহ তার এলাকার বেশ কয়েকজন বান্ধবী কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের জন্য যায়। ফেরার পথে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ হারায় সে।

পাবনার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। হাইওয়ে পুলিশকে জানানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply