সাজা ভোগের ২৭ বছর পর নির্দোষ প্রমাণিত

|

ভারত থেকে গরু পাচারের মামলায় বিচারিক আদালতের দেয়া রায়ে পাঁচ বছর জেলে খেটেছিলো আসামিরা, তারপর পার হয়ে গেছে ২৭ বছর। কিন্তু আজ হাইকোর্ট রায় দেন অভিযুক্ত ব্যক্তিরা নির্দোষ ছিলেন।

এদিকে দুই অভিযুক্তদের মধ্যে আবদুল কাদের এখনও বেঁচে আছেন অপরজন মফিজুর রহমান মারা গেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৯৮৬ সালে যশোরের শার্শা থানায় ভারত থেকে বাংলাদেশে ছয়টি গরু অবৈধভাবে পাচারের অভিযোগে এই দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। তৎকালীন বিডিআরের ল্যান্সনায়েক আমির আলী এই মামলাটি করে থাকেন। সে বছরই যশোর আদালত তাদের পাঁচ বছরের সাজা প্রদান করে রায় দেয়।

পরে এই দুই অভিযুক্ত যশোর হাইকোর্ট বেঞ্চে ১৯৮৭ সালে আপীল করে। এদিকে ১৯৯১ সালে সাজা ভোগের পর অভিযুক্তরা বের হয়ে যায়।

অপরদিকে ১৯৯১ সালে হাইকোর্টের যশোর বেঞ্চ বিলোপ হয়ে গেলে মামলাটি ঢাকার হাইকোর্টে স্থানান্তর করা হয়। এরপর থেকেই মামলাটি আদালতে ঝুলে থাকে।

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের লিগাল অ্যাইড কমিটি মামলাটির শুনানির জন্য আপীল করে। এরপর গতকাল বিচারপতি রেজাউল হকের বেঞ্চে শুনানি হয়। এবং অভিযুক্তদের খালাস দিয়ে আজ রায় দেন।









Leave a reply