ছাত্রীর ওড়না ধরে টান দেয়ায় শিক্ষককে পিটুনি

|

মাগুরা প্রতিনিধি

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার হাট দারিয়াপুর সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মহসিন আলী বিশ্বাসকে আজ মঙ্গলবার ইভটিজিংয়ের দায়ে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীর শ্রেণিকক্ষে ওড়না ধরে টান দেওয়ার অভিযোগ এনে প্রধান শিক্ষক বরাবর বিচার দাবি করে একটি লিখিত আবেদন দেয়া হয় আজ। এ ঘটনা জানাজানি হলে ছাত্র-ছাত্রী ও এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে পড়ে।
এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে পিটুনি দেয় এলাকাবাসী ও ছাত্র-ছাত্রীরা। তাকে রক্ষা করতে গিয়ে প্রধান শিক্ষকসহ অন্তত ৫ শিক্ষক ও শিক্ষিকা আহত হয়। আহত সহকারী প্রধান শিক্ষক নওয়াবুল ইসলাম ও শিক্ষিকা আরমিন নাহারকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

উত্তেজিত এলাকাবাসী প্রধান শিক্ষকসহ অন্য শিক্ষকদের দুইঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা অফিসার ইনচার্জ ফোর্সসহ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে অভিযুক্ত শিক্ষককে থানায় নিয়ে যায়। পরে উত্তেজিত এলাকাবাসী প্রধান শিক্ষক ও অন্য শিক্ষকদের উপর হামলা করে। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে পরিচালনা কমিটির সদস্য হুমায়ুন কবির চঞ্চল ও সহকারী প্রধান শিক্ষক নওয়াবুল ইসলাম আহত হন।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান উল্লাহ শরিফী জানান, খবর পেয়ে স্কুলে গিয়েছিলাম। অভিযুক্ত শিক্ষককে হাজতে রাখা হয়েছে, তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটিকে অভিযুক্ত শিক্ষকের সাময়িক বরখাস্ত করার জন্য বলা হয়েছে।









Leave a reply