বাংলাদেশি ব্যাটারদের ‘ডাক’ কাহন

|

টি-টোয়েন্টি শূন্য রানে আউট হওয়ায় এগিয়ে সৌম্য, লিটন ও মুশফিক।

ব্যর্থ বিশ্বকাপ মিশন শেষে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। তবে টাইগারদের ব্যর্থতার পোস্ট মর্টেমের শুরু হলো মাত্র, এটা বলাই যায়। চলমান বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ব্যর্থতার বড় দায় ব্যাটারদের। স্লো স্ট্রাইক রেট, অধারাবাহিকতার পাশাপাশি ১৩ বার শূন্য বা ডাক মেরেছে টাইগার ব্যাটাররা। বাংলাদেশ ব্যাটারদের ‘ডাক’ কাহন একটু দেখে আসা যাক।

ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে হলুদ ডাক বা হাঁসটির কথা নিশ্চয়ই মনে আছে। ব্যাটাররা শূন্য রানে আউট হলে টিভি স্ক্রিনে এই ডাকের ব্যবহার প্রথম শুরু করে অস্ট্রেলিয়ার টিভি, চ্যানেল নাইন। স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ না করে ফেরা ব্যাটারদের জন্য দেখানো হয় এই ডাক। আর ব্যাটারদের জন্য হয়তো সবচেয়ে লজ্জাজনক ব্যাপার এই শূন্য রানে আউট হওয়াটাই। এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা ১৩ বার আউট হয়েছেন শূন্য রানে। দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে ডাক মেরে ফেরার পাশাপাশি এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টির ৬৬ ইনিংসে ১০ বার শূন্য রানে আউট হয়েছে সৌম্য সরকার। আর ৫ রানের মধ্যে আউট হয়েছেন ১৪ বার।

এই বিশ্বকাপে একবারসহ এখন পর্যন্ত খেলা ৯০ টি-টোয়েন্টি ইনিংসে ৮ বার ডাক মেরে আউট হয়েছেন মুশফিকুর রহিম। আর পাঁচ রানের মধ্যে আউট হয়েছেন ২৪ বার।

চলমান বিশ্বকাপে দুটি ডাক মেরেছেন আফিফ হোসেন। ৩১ ইনিংসের ক্যারিয়ারে এরইমধ্যে মোট ৫ বার শূন্য রানে ফিরেছেন এই তরুণ। আর ৫ রানের গণ্ডি পেরোতে ব্যর্থ হয়েছেন আরও ছয়বার।

সবশেষ অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে স্টার্কের বলে বোল্ট হয়ে শূন্য রানে ফিরেছেন লিটন দাস। ৪৫ ইনিংসে এখন পর্যন্ত মোট ৪ বার ডাক মেরেছেন লিটন।

সাকিব আল হাসানের নামের পাশে ৯৩ ইনিংসে আছে ৭টি ডাক। আর ১ থেকে ৫ রানের মধ্যে সাকিব আউট হয়েছেন আরও ১৫ বার।

সিনিয়রদের মধ্যে সবচেয়ে কমবার শূন্যরানে ফিরেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ১০২ ইনিংসে মাত্র ৩ বার ডাক মেরেছেন টাইগার দলপতি। আর ৫ রানের গণ্ডিতে ফিরেছেন ২০ বার।

এছাড়াও নাঈম শেখ ২ আর নুরুল হাসান সোহান টি-টোয়েন্টিতে ডাক মেরেছেন তিনবার।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে উন্নতি করতে এই পরিসংখ্যানটাও উন্নতি করতে হবে টাইগার ব্যাটারদের।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply