মৃত্যুর দেড় বছর পর পুনরায় তদন্তের জন্য কবর থেকে কিশোরীর মরদেহ উত্তোলন

|

ছবি: সংগৃহীত।

গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রাজাবাড়ি এলাকা থেকে পুনরায় তদন্তের জন্য তানজিনা ইসলাম টুম্পা নামে এক কিশোরীর মরদেহ কবর থেকে ওঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) সকালে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না রহমান জ্যোতির উপস্থিতিতে টুম্পার মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

নিহত টুম্পার স্বজনরা জানান, ২০১৮ সালে টুম্পাকে জোর করে বিয়ে করে টঙ্গীর ইসলামপুরের সাইদ মৃধার ছেলে সাকিব মৃধা। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য টুম্পাকে প্রায়ই মারধর করতো নিহতের স্বামী সাকিব ও অন্যান্যরা। নিজের নিরাপত্তার কথা ভেবে টুম্পা ২০১৯ সালের জুলাই মাসে স্বামী সাকিবের নামে নিকটস্থ থানায় সাধারণ ডায়েরী করে। থানায় জিডি করার বছরের মাথায় অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে মৃত্যু হয় টুম্পার।

পিবিআই তদন্ত কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান জানান, ২০২০ সালে আসামি সাকিবকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হলেও আসামিদ্বয় জামিনে বের হয়ে আসে। পরে আদালত উক্ত মামলার দায়িত্ব পিবিআই এর কাছে হস্তান্তর করেন। তদন্তের সুবিধার্থে আদালতের অনুমতি ক্রমেই মরদেহ উত্তোলন করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply