হারাগাছে মাদক বিরোধী অভিযানের সময় মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

|

ছবি: সংগৃহীত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রংপুর:

হারাগাছে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান চলার সময় তাজুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির নিহতের ঘটনা তদন্তে চার সদস্যের কমিটি গঠন করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ।

তদন্ত কমিটিকে ৭ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেয়ার কথা বলা হয়েছে উল্লেখ করে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ জানান, ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মেহেদুল করিমকে আহ্বায়ক এবং উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) কাজী মোত্তাকী ইবনু মিনান, উপ-পুলিশ কমিশনার (সিটিএসবি) আবুবকর সিদ্দিক ও সহকারী পুলিশ কমিশনার (পরশুরাম জোন) আরিফুজ্জামানকে সদস্য করা হয়েছে।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে পরিবারের পক্ষ থেকে অপমৃত্যু, হারাগাছ থানার এসআই রিয়াজুল ইসলাম বাদী হয়ে মাদক উদ্ধার এবং এসআই আব্দুল খালেক বাদী হয়ে থানায় হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে মামলা করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়েছে কিনা পুলিশ আনুষ্ঠানিকভাবে সে ব্যাপারে কিছুই জানায়নি।

গত সোমবার সন্ধ্যায় হারাগাছের দরদী স্কুলের পাশে বানিয়ার তেপতি এলাকায় মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান চলার সময় ঘটনাস্থলে নিহত হন তাজুল ইসলাম নামের ৫২ বছর বয়সী ওই বিপত্নীক ব্যক্তি। তাকে গ্রেফতারের পর পেটানো হলে পাশের দেয়ালে আছড়ে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান এমন অভিযোগ প্রত্যক্ষদর্শী ও পরিবারের পক্ষ থেকে করা হলেও পুলিশের দাবি ওই অভিযোগ গুজব। অভিযানের সময় তিনি অসুস্থ থাকায় হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন। ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার বাদ আছর তাকে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে উত্তেজিত জনতা সোমবার রাতে হারাগাছ থানা হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়।

ইউএইচ/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply