নির্বাচন ঘিরে বাউফলে আবার গোলাগুলি

|

স্টাফ রিপোর্টার, পটুয়াখালী:

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মাঠ দখলকে কেন্দ্র করে ৪৮ ঘণ্টার আবার সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বাউফল উপজেলার নওমালা ইউনিয়নে। আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী কামাল হোসেন বিশ্বাস এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান শাহাজাদা হাওলাদারের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে ঘটেছে এই সংঘর্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে পুলিশ তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে।

সোমবার (১ নভেম্বর) দুপুরে নওমালা ইউনিয়নের নগরের হাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। উদ্বুদ্ধ পরিস্থিতির জন্য এক পক্ষ অন্য পক্ষের ওপর দায় চাপানোর চেষ্টা করছে।

জানা যায়, দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে বিদ্রোহী প্রার্থী শাহাজাদা হাওলাদারের নগরের হাট বাসা ও দোকানে নৌকার প্রার্থী কামাল হোসেনের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে শাহজাদার কর্মী-সমর্থকেরা ছুটে এলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক ইটপাটকেল ও কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ উপস্থিত হয়ে তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মামুন সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের সময় চার-পাঁচ রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার জন্য তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়েছে। এসময় কেউ হতাহত হয়নি বলেও জানান তিনি। তবে যারা গোলাগুলি করেছে, তাদের ধরতে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, এই এলাকায় এর আগেরদিন দুইপক্ষের সংঘর্ষে সজীব নামের একজন গুলিবিদ্ধ হন। বর্তমানে তিনি বরিশাল শেবাচিমে চিকিৎসাধীন আছেন।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply