নাসিরনগরে মন্দির ভাঙচুর মামলার পাঁচ বছরেও জমা পড়েনি চার্জশিট

|

ছবি: সংগৃহীত।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে বিভিন্ন মন্দির এবং বাড়িঘরে হামলার ৫ বছর পার হলেও একটি মামলারও বিচার কাজ শুরু হয়নি। ৮টি মামলার মধ্যে মাত্র একটি’র চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। ভুক্তভোগীরা বলছেন, নাসিরনগরে হামলার বিচার হলে দুস্কৃতিকারীরা আর এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর সাহস পেতো না। অবশ্য এ নিয়ে পুলিশ বলছে, ফরেনসিক রিপোর্ট পেতে দেরি আর মামলার আসামি সংখ্যা বেশি হওয়ায় অভিযোগপত্র জমা দিতে সময় লাগছে। তদন্ত শেষ পর্যায়ে বলেও জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

এর আগে, ২০১৬ সালের ৩০ অক্টোবর নাসিরগরের দাশপাড়া, দত্ত পাড়া, নমশুদ্র পাড়াসহ কয়েকটি এলাকায় মন্দির ভাঙচুরের ঘটন ঘটে। ফেসবুক পোস্টে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে, বিভিন্ন মন্দির ও বাড়িঘরে ভাঙচুর-লুটপাট ও আগুন দেয়া হয়।

এই ঘটনার পর গেলো ৫ বছর ধরে এসব এলাকায় মিলেমিশেই বসবাস করছেন বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ। তবে, মনের ক্ষত রয়েই গেছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের। হামলার ঘটনায় এখনও বিচার পাননি তারা। ৮টি মামলার মধ্যে ৭ মামলায় এখনও অভিযোগপত্রই জমা দেয়নি পুলিশ। গ্রেফতার সব আসামিই জামিনে রয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলছেন, মামলাগুলোর অভিযোগপত্র দেয়ার জন্য বারবার তাগাদা দেয়া হয়েছে পুলিশকে। ফরেনসিক রিপোর্ট পেতে বিলম্ব এবং আসামির সংখ্যা বেশি হওয়ায় মামলাগুলোর চার্জশিট জমা দিতে সময় বেশি লাগছে বলে দাবি ব্রাহ্মণবাড়িয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের মোল্লা মোহাম্মদ শাহীনের। আগামী এক মাসের মধ্যে ৭টি মামলার অভিযোগপত্র জমা দেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply