কলকাতায় বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার

|

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে এবার কলকাতা প্রেসক্লাবেও স্থাপিত হলো বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার। কলকাতা প্রেসক্লাব ও বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের উদ্যোগে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করলো মিডিয়া সেন্টারটি। আধুনিক সুবিধাসমৃদ্ধ এই সেন্টারে রয়েছে কম্পিউটার, স্ক্যানার, প্রদর্শনী হল ও গ্রন্থাগার। বৃহস্পতিবার এর উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রীর ৫০তম বছরে, নয়াদিল্লীর পর কলকাতাতেও বঙ্গবন্ধু মিডিয়া কর্ণার স্থাপনকে তাৎপর্যপূর্ণ বললেন, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, এই বাংলার মানুষ, ভারতবর্ষের বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে বিরাট অবদান রেখেছে। আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার করার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে সম্মান প্রদর্শনের জন্য তিনি উদ্যোগতাদের ধন্যবাদ জানান।

বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের এ উদ্যোগে অংশীদার হওয়ায় কলকাতা প্রেসক্লাবকে ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশের উপ-রাষ্ট্রদূত। দুই দেশের সাংবাদিকদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে একসাথে কাজ করার কথাও বলেন তিনি।

কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপ-রাষ্ট্রদূত তৌফিক হাসান বলেন, এই কেন্দ্রটি সবার কাজে লাগবে। আপনারা সবাই এর মাধ্যম বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে পারবেন। এ বছরটি আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এ বছরটি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর এবং ভারত-বাংলাদেশ কূটনৈতিক সম্পর্কেরও ৫০ বছর হয়েছে।

মিডিয়া সেন্টারের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য কলকাতা প্রেস ক্লাব ও বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয়। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রাখায় কলকাতার পাঁচ সিনিয়র সাংবাদিককে দেয়া হয় সম্মাননা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা প্রেস ক্লাবের সভাপতি স্নেহাশীষ সুর, বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের প্রথম সচিব রঞ্জন সেন, দিল্লিতে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রেস মিনিস্টার সাবান মাহমুদসহ অনেকে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply