রানপ্রসবা আবু জায়েদে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলবে বাংলাদেশ

|

ছবি: সংগৃহীত

অপরূপ সৌন্দর্যের এক স্টেডিয়াম আবুধাবির শেখ জায়েদ। মরুর দেশে যেন একখণ্ড সবুজ গালিচা। মূল পর্বের ১১ টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আবুধাবির নান্দনিক স্টেডিয়াম শেখ জায়েদে। বাংলাদেশ কাল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে নামবে এই স্টেডিয়ামেই।

মরুর বুকে উঠেছে ক্রিকেট ঝড়৷ তবে ভয় নেই, এই ঝড়ে নেই আতঙ্ক, আছে স্রেফ ক্রিকেটীয় উন্মাদনা। চার-ছক্কার ধুন্ধুমার ব্যাটিং, সাথে দুর্দান্ত ফিল্ডিং। কারো মুখে জয়ের হাসি, কারো চেহারায় হারের পর বিষণ্ণ অভিব্যক্তি। এরই মাঝে সৌন্দর্যের প্রতীক হয়ে পারস্য উপসাগরের কোলে দাঁড়িয়ে থাকা এই স্টেডিয়ামের পুরো নাম শেখ আবু জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়াম। প্রায় ২ কোটি ৩০ লাখ ডলারে শেষ হয় যার নির্মাণ কাজ। স্টেডিয়ামটির আসন সংখ্যা ২০ হাজার।

আরব আমিরাতের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম রাষ্ট্রপতি মরহুম শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান এর নামানুসারে নামকরণ করা হয় এই স্টেডিয়ামের। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামের যাত্রা শুরু হয় ২০০৬ সালে, ঐতিহাসিক ভারত-পাকিস্তান মহারণে।

আরব আমিরাতের অন্যান্য মাঠের ন্যায় এই মাঠকেও পাকিস্তান ও আফগানিস্তান ক্রিকেট একাধিকবার হোম গ্রাউন্ড হিসেবে ব্যবহার করেছে। তাছাড়া একাধিকবার পিএসএল, আবুধাবি টি-টেন লিগ ও আইপিএল ক্রিকেট আয়োজিত হয়েছে এই মাঠে। বিশ্রামের ফুসরত মেলেনি মাঠটির। রান প্রসবা এই মাঠে সদ্য সমাপ্ত আইপিএল এর গড় স্কোর ছিল ১৬৫। ব্যাটসম্যানদের শুনে খুশি হওয়ারই কথা!


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply