জার্মানিতে ভিন্নধর্মী ‘গোঁফওয়ালা’র প্রতিযোগিতা

|

ছবি: সংগৃহীত।

যেন গোঁফে তা দিয়ে ঘুরে বেড়ানো। রাজসিক দাড়ি-গোঁফের অধিকারি মানুষগুলোর চালচলনেও রয়েছে একধরনের আভিজত্য। আর এদের নিয়েই জার্মানি’র সাউথ বাভারিয়ানে হয়ে গেলো গেলো একটি ব্যতিক্রমি প্রতিযোগিতা।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের কারো গোঁফ সূচালো, কারোটা চন্দ্রাকৃতির, কেউ আবার গোঁফ পাকিয়েছেন ঊর্ধ্বমুখী। বাহারি এমন নকশার গোঁফেরও রয়েছে বাহারি নাম। ইংলিশ, শেভরণ, ডালি, পিরামিড কিংবা হর্স স্যু আকৃতির গোঁফ সবার নজর কেড়েছে। জার্মানিতে আয়োজিত বার্ষিক এ চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেন বিভিন্ন শহরের শতাধিক মানুষ।

নানা কায়দায় পাকিয়ে তোলা দাড়ি গোঁফ নিয়ে বহু মানুষ সামিল হন এই প্রতিযোগিতায়। এখানেও ছিল দু’পক্ষ। একপক্ষ নিজেরাই নানা কায়দায় যত্ন নিয়ে গোঁফ বানিয়েছেন। আরেক পক্ষ যারা প্রকৃতিগতভাবেই গর্ব করার মতো দাড়ি গোঁফের মালিক। কখনই করেননি কাটছাট।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের থেকে সেরাদের নির্বাচিত করেছেন বেশ কয়েকজন বিচারক। তাদের ভোটেই নির্বাচিত হয়েছেন সেরা তিন গোঁফওয়ালা। তথ্য বলছে, ১৯৯০ সালে জার্মানির ব্ল্যাক ফরেস্ট এলাকায় প্রথম চালু হয় এই চ্যাম্পিয়নশিপ। এখন প্রতি দুই বছর পরপর আন্তর্জাতিকভাবে হচ্ছে এই প্রতিযোগিতা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply