চট্টগ্রামে পেঁয়াজের দাম কমছে

|

বাজার স্থিতিশীল রাখতে বাড়ছে বিকল্প দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি। বিশেষ করে মিয়ানমার এবং তুরস্ক থেকেই বেশি পেঁয়াজ আনা হচ্ছে। তবে মিয়ানমার থেকে নদীপথে আনা বেশিরভাগ পেঁয়াজই পচা। আমদানি বাড়ায় প্রভাব পড়ছে দেশের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জেও। এই বাজারে দাম অনেকটাই কমতির দিকে।

খাতুনগঞ্জের সব আড়তে এখন মিয়ানমারের পেঁয়াজের ছড়াছড়ি। এর মধ্যে নষ্ট অনেক পেঁয়াজ স্তুপাকারে রাখা হচ্ছে আড়তের পাশে। আড়তদারদের দাবি, নৌপথে খোলা বোটে কোনো প্রকার সংরক্ষণ সুবিধা ছাড়াই আনার সময় নষ্ট হচ্ছে অনেক পেঁয়াজ। এর ফলে লোকসানে পড়ছেন আমদানিকারকরা। তারপরও পচা এসব পেঁয়াজ রোদে শুকিয়ে তুলনামূলক কম দামে খুচরা বাজারে ছাড়ছেন তারা। বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ টাকায়।

এদিকে পূজার সময় ভারত থেকে নাসিক পেঁয়াজের সরবরাহও বেড়েছে এ সপ্তাহে। নিম্ন মানের মিয়ানমারের পেঁয়াজের আধিক্যের কারণে ভারতীয় পেঁয়াজের দামও কমতির দিকে। পাশাপাশি বিকল্প উৎস হিসেবে তুরষ্ক থেকেও আসছে পেঁয়াজ। আর এর ফলে ধারণা করা হচ্ছে, পেঁয়াজের উচ্চ বাজারদর অচিরেই নেমে আসবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply