পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পাবে কাশ্মির

|

তিন দিনের উপত্যকা সফরকালে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আশ্বাস দিয়েছেন, কাশ্মীরকে আবরও পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা ফিরিয়ে দেয়া হবে। তবে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা পেতে হলে কাশ্মিরকে পালন পূরণ করতে হবে কিছু শর্ত। নির্বাচনী এলাকা পুনর্বিন্যাস করে সুষ্ঠু ভোট অনুষ্ঠানের পরই ফিরিয়ে দেয়া হবে পূর্ণাঙ্গ রাজ্যের মর্যাদা।

২০১৯ সালে সংবিধানের ৩৭০ ধারা বিলোপের মাধ্যমে তিনটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করা হয় জম্মু-কাশ্মির ও লাদাখকে। এরপর এটাই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রথম উপত্যকা সফর। চলতি মাসেই সেখানে ১২ বেসামরিককে হত্যা করা হয়। যাদের বেশিরভাগই ভিন্ন রাজ্য এবং সংখ্যালঘু শিখ সম্প্রদায়ের।

এমন ঘোলাটে পরিস্থিতির মধ্যেই অমিত শাহ বললেন, সরকারের একার পক্ষে সন্ত্রাসবাদ নিমূর্ল অসম্ভব। এজন্য যুব সম্প্রদায়ের সহযোগিতা প্রয়োজন। ইন্টারনেট বন্ধ এবং কারফিউ জারি না থাকলে আরও প্রাণহানি হতো বলেও মন্তব্য করেন অমিত শাহ।

ভারতের এই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিরোধী দলগুলো নির্বাচনী আসন পুনর্বিন্যাসের কাজ ঠেকাতে চাইছে। কারণ, তাতে এতোদিনের রাজনৈতিক খেলা পণ্ড হবে। তিনটি পরিবার দীর্ঘদিন যাবৎ শাসন করছে উপত্যকা। তাই, কাশ্মিরি তরুণ প্রজন্মের উন্নয়ন, বেকারত্ব দূরীকরণ এবং ভাগ্য পরিবর্তনের জন্যেই আসন পুনর্বিন্যাস জরুরি। তারপর সুষ্ঠু নির্বাচন হবে উপত্যকায়। এরপরই পূর্ণাঙ্গ রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পাবে জম্মু-কাশ্মির।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply