‘ক্রস ফায়ারের ভয় দেখিয়ে মিতুকে খুন করান এসপি বাবুল’

|

আসামি এহতেশামুল হক।

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারের নির্দেশেই তার স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতুকে হত্যা করেছিল মুসা। মিতুকে হত্যা না করলে বাবুল আক্তারকে ক্রস ফায়ারের হুমকি দিয়েছিলো বলে মামলার আসামি এহতেশামুল হক ওরফে ভোলা আজ শনিবার (২৩ অক্টোবর) আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, বাবুল আক্তারের নির্দেশেই মুসা, মিতুকে খুন করেছিল বলে ভোলা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। খুনের মিশন সফল করতে কি করতে হবে সে ব্যাপারেও বাবুল মুসাকে শিখিয়ে দিয়েছিল।

এর আগে শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকা বেনাপোল থেকে এহতেশামুল হক ওরফে ভোলাকে গ্রেফতার করা হয়।

আজ শনিবার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শফি উদ্দিনের আদালতে আসামি ভোলার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়া হয়।

২০১৬ সালের ৫ জুন নগরীর জিইসি মোড় এলাকায় প্রকাশ্যে গুলি করে ও ছুরিকাঘাতে খুন করা হয় বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতুকে। এ ঘটনায় বাবুল আক্তার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে পাঁচলাইশ থানায় মামলা দায়ের করেন। 

সম্প্রতি পিবিআই’র তদন্তে মিতু হত্যায় তার স্বামী বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা উঠে আসে। এরপর মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে বাবুল আক্তারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় বাবুল আক্তারসহ ৫ জন কারাগারে রয়েছেন।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply