নারায়ণগঞ্জে নাতনীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ নানার বিরুদ্ধে

|

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বাড়ি থেকে ফুঁসলিয়ে অপহরণ করে ধর্ষণের পর ৯ বছরের এক শিশুকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার চাচাতো নানার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত নানাকে আটক করেছে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ। নিহত শিশু স্থানীয় একটি স্কুলের ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক হুমায়ুন কবির জানান, উপজেলার ভক্তবাড়ি এলাকার সেলিম মিয়ার ৯ বছর বয়সী কন্যা সন্তান সামিয়াকে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় চিপস কিনে দেবার কথা বলে বাড়ি থেকে নিয়ে যায় তার চাচাতো নানা মোশারফ।

এদিকে সময় গড়িয়ে গেলেও দুজনের কাউকেই খুঁজে না পেয়ে সামিয়ার মা পারুল রূপগঞ্জ থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন।

শনিবার দুপুরে অভিযুক্ত নানা মোশারফকে আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, শিশু সামিয়াকে অপহরণ করে ধর্ষণের পর গতকাল রাতেই হত্যা করে মোশারফ।

শুধু তা-ই নয়, খুন করে লাশ স্থানীয় একটি কাশবনে গুমও করে ঘাতক। সেই গুপ্তস্থানে পুলিশকে নিয়ে যায় মোশারফ নিজেই। এরপর স্থানীয় জাঙ্গীর এলাকার আনন্দ হাউজিং প্রকল্পের ভেতরে কাশবন থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply