অস্ত্রসহ রাস্তায় নামলো হাইতির গ্যাং সদস্যরা

|

হাইতির সড়কে এবার বিক্ষোভে নেমেছে সশস্ত্র গ্যাংয়ের সদস্যরা। এসময় অস্ত্র প্রদর্শন করে স্লোগান দেন তারা।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) দেশটির রাজধানী পোর্ট-অ-প্রিন্সে অস্ত্রসহ বিক্ষোভে অংশ নেয় গ্যাং সদস্যরা। তাদের দাবি, শিশুসহ ১৭ মিশনারি অপহরণ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশটির সশস্ত্র সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে অপবাদ দেয়া হচ্ছে। অপহরণ ঘটনায়ও তারা জড়িত নন।

এছাড়াও গ্যাং হিসেবে চিহ্নিত করায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন। নিজেদেরকে গ্যাং নয়, বরং সশস্ত্র সংগঠন বলে দাবি তাদের। তারা জানান, অধিকার আদায়ের দাবিতে যুবসমাজকে সংগঠিত করাই তাদের কাজ।

এদিকে, চাহিদামত মুক্তিপণ না পেলে মিশনারিদের পয়েন্ট ব্ল্যাংক রেঞ্জ থেকে মাথায় গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে হাইতির মায়েজো ৪০০ গ্যাংয়ের গ্যাংলিডার উইলসন জোসেফ। গত সপ্তাহে হাইতির আতঙ্ক হিসেবে পরিচিত এ গ্যাং ১ কোটি ৭০ লাখ মার্কিন ডলার মুক্তিপণ দাবি করে ১৭ মিশনারির মুক্তির বিনিময়ে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে হাইতির রাজধানী পোর্ট অফ প্রিন্স এর বাইরে থেকে ১৭ জন মিশনারির দলটিকে অপহরণ করে হাইতির আতঙ্ক নামে পরিচিত ৪০০ মায়োজো গ্যাং। এ গ্যাংটি একসময় ছোটখাট স্ট্রিট ও পেটি ক্রাইমের সাথে যুক্ত থাকলেও পরবর্তীকালে অপহরণ চেইন হিসেবে কুখ্যাতি লাভ করে। উল্লেখ্য, অপহৃত হওয়ার সময় পাঁচ পুরুষ, সাত নারী এবং পাঁচ শিশুর দলটি একটি এতিমখানা পরিদর্শন শেষে ফিরছিলো।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply