প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে অজিদের বোলিং, শুরু আসল বিশ্বকাপ

|

ছবি: সংগৃহীত

আবুধাবিতে অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ। কোয়ালিফায়ার রাউন্ড ও ওয়ার্ম আপ ম্যাচগুলোর পর তাই বলা যায়, বিশ্ব মঞ্চের দুই জায়ান্টের লড়াই দিয়ে শুরু হচ্ছে আসল বিশ্বকাপ।

সাবেক ক্রিকেটাররা ইতোমধ্যেই জানাচ্ছেন, তাদের চোখে পাঁচ ফেভারিট দলের নাম। কিন্তু এর মধ্যে ভারত, পাকিস্তান, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজের নাম থাকলেও বেশির ভাগ মতামতেই নেই অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকার নাম। তবে তাদেরকে বাতিলের খাতায় ফেলাও দুঃসাহসিক কাজ হয়ে যেতে পারে। দুবাই, আবুধাবির মাটিতে স্টার্ক, কামিন্স, হ্যাজলউডদের সাথে রাবাদ, নকিয়াদের পেস খুব একটা কার্যকর হবে না, এমনটাই ভাবছেন বোদ্ধারা। তাদের মধ্যে ব্রেট লীও আছেন। বলেছেন, পেসম্যানদের সাথে জাম্পা, অ্যাগারদের সাফল্যের দিকেও তাকিয়ে থাকবে অজিরা।

অন্যদিকে সময় ভালো যাচ্ছে না ওয়ার্নার, ফিঞ্চদের। ম্যাক্সওয়েল, স্টয়নিসদের মতো হার্ড হিটারের সাথে স্টিভেন স্মিথের উইলোর দিকেও ভরসা খুজবে ফিঞ্চ বাহিনী। আর দক্ষিণ আফ্রিকার হার্ড হিটাররা চাইবে কুইন্টন ডি ককের মাধ্যমে শুরু থেকেই আক্রমণ চালিয়ে যাওয়ার পর র‍্যাসি ভ্যান ডার ডুসেন, ভিক্টর ক্লাসেনরা চালিয়ে যাবে সেই গতি। এরপর কিলার দ্য মিলার তো আছেনই।

৭ ব্যাটার ও ৪ স্পেশালিস্ট বোলার নিয়ে মাঠে নেমেছে অস্ট্রেলিয়া। উইকেট ভালো থাকায় একটি পরিবর্তন এসেছে অজি একাদশে। অ্যাস্টন অ্যাগারের পরিবর্তে দলে আছেন পেসার প্যাট কামিন্স। সঙ্গে আছেন পেসার মিচেল স্টার্ক ও জস হ্যাজেলউড। অ্যাডাম জাম্পা ও ম্যাক্সওয়েল সামলাবেন স্পিন আক্রমণ। দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশে রেখেছে দুই স্পিনার তাব্রাইজ শামসী আর কেশব মহারাজকে।

এরইমধ্যে হয়ে গেছে টস। টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। দেখা যাক, কেমন উত্তাপ ছড়ায় জোহানেসবার্গের ওয়ানডেতেই ৪৩৪-৪৩৮ এর মহাকাব্যিক ম্যাচ উপহার দেয়া খুনে এই দুই দল।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply