সুনামগঞ্জের নৌপথে চাঁদা আদায় এখন ওপেন সিক্রেট

|

টাকা ছাড়া চলাই দায় সুনামগঞ্জের নৌপথে। বাণিজ্যিক নৌযান থেকে মোটা অংকের চাঁদা আদায় এখন ওপেন সিক্রেট এখানে। ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে তো টাকা নেয়ার অভিযোগ আছেই, আছে পুলিশের বিরুদ্ধেও। এই এলাকার নৌপথ যেন পুরোটাই অনিয়মের স্বর্গরাজ্য। প্রভাবশালী চক্র রীতিমত নিজেদের রাজ্য তৈরি করে চালাচ্ছে চাঁদাবাজি। সুনামগঞ্জের বিভিন্ন নদ-নদী দিয়ে বালু-পাথরসহ বিভিন্ন পণ্য নিয়ে চলাচলকারী নৌযান শ্রমিকদের দাবি, টাকা তুলতে ব্যবহার হচ্ছে রাজনৈতিক পরিচয়, এমনকি টাকা তোলা হয় পুলিশের নামেও।

নৌযান চালাতে গিয়ে হরহামেশাই মারধরের শিকার হচ্ছেন শ্রমিকরা। চাহিদামতো চাঁদা না দিলে আটকে রেখে করা হয় হেনস্থা। অভিযোগ রয়েছে, ভুক্তভোগীরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তা চাইলেও পাচ্ছে না। উল্টো পুলিশ দেখিয়ে দিচ্ছেন ইউএনওকে। ইউএনও-ও বলছেন দায়সারা কথা।

যমুনার ক্যামেরায় ধরা পড়ে, সীমান্তঘেঁষা নদীতে প্রকাশ্যে চাঁদা আদায়ের দৃশ্য। এমন খবরও পৌঁছে যায়, টাকা তোলার সাথে জড়িতদের কানে। সাথে সাথেই তারা হাজির হয় টাকা দিয়ে ‘ম্যানেজ’ করতে।

মাঝনদীতে টাকা তোলার বিষয়টি নিয়ে জানতে চাওয়া হয় দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তার কাছে। তিনি ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি নন। তবে কিছু সুবিধা পাইয়ে দেয়ার ইঙ্গিত দিলেন তিনি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply