ঘুমন্ত স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা, স্ত্রী গ্রেফতার

|

নিহত আব্দুর রাজ্জাক।

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর:

নাটোরের নলডাঙ্গায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘুমন্ত স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) রাত ১২টার দিকে উপজেলার মোমিনপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পরে শনিবার সকাল ১০টার দিকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহত আব্দুর রাজ্জাক উপজেলার মোমিনপুর গ্রামের হামেদ আলী ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের পিতা হামেদ আলী বাদী হয়ে সালমাকে অভিযুক্ত করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মুদি ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাক গত রাত ১১ টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যায়। দীর্ঘদিন ধরেই তার স্ত্রীর সাথে বিরোধ চলছিল। তাদের মধ্যে মাঝে মাঝেই হাতাহাতির ঘটনা ঘটতো। এছাড়াও রাজ্জাকের স্ত্রী সালমা বেগম প্রায়ই রাজ্জাককে মারধর করে নির্যাতন চালাতো। এরই এক পর্যায়ে গতকাল রাতে স্বামী আব্দুর রাজ্জাক ঘুমিয়ে পড়লে স্ত্রী সালমা বেগম তাকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে। সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে এবং স্ত্রী সালমাকে গ্রেফতার করে।

নিহতের পিতা হামেদ আলী জানান, সালমা পরকীয়ায় আসক্ত থাকার কারণে তার ছেলের সাথে প্রায়ই বিরোধ লেগে থাকতো। প্রায়ই তার ছেলে সালমার হাতে মারধরের স্বীকার হতো। এরই ধারাবাহিকতায় তার ছেলে আব্দুর রাজ্জাককে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply