যেসব অভ্যাসে হতে পারে স্ট্রোক

|

ছবি: সংগৃহীত

জটিল রোগগুলোর মধ্যে অন্যতম ব্রেইন স্ট্রোক। মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশে রক্ত সরবরাহ বাধাপ্রাপ্ত হলে মস্তিষ্কের টিস্যুতে অক্সিজেন ও পুষ্টি পেতে বাধা পেলে স্ট্রোক হতে পারে। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে কিছু বদঅভ্যাসে ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়। অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসসহ নানা কারণে স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। তাই নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ও সচেতন হতে আজ জানুন এমন কয়েকটি অভ্যাস সম্পর্কে যেগুলো বাড়িয়ে তুলতে পারে ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি-

* ধূমপান: আমাদের দেশের সবচেয়ে বেশি পরিচিত ক্ষতিকারক অভ্যাস হচ্ছে ধূমপান। কিন্তু এই অভ্যাসটি ব্রেইন স্ট্রোকসহ হার্ট ও শ্বাসকষ্টেরও অনেক ক্ষতি করে। মেডিসিন বিশেষজ্ঞ জন হপকিন্স বলেন, ধূমপান ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি প্রায় দ্বিগুণ বাড়িয়ে তোলে।

* কায়িক শ্রমের অভাব: নিষ্ক্রিয় থাকা বা শরীরকে নির্লিপ্ত করে রাখা শুধু ওজনই বাড়ায় না, এর পাশাপাশি এটি বড় ধরনের অসুখেরও কারণ হতে পারে। এটি ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় অনেক বেশি। তাই ঝুঁকি এড়াতে নিয়মিত ব্যায়াম, স্বাস্থ্যকর খাওয়া এবং অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের অভ্যাসকে বদলাতে হবে।

* অ্যালকোহল গ্রহণ: এই বিষয়টি অনেকেরই জানা যে অ্যালকোহল বা মদপান করলে তা স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেক বাড়িয়ে দেয়। মেডিসিন বিশেষজ্ঞ জন হপকিন্স বলছেন, মদপান করলে স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে এবং এটি রক্তচাপ অনেক বাড়িয়ে দেয়।

* অন্যান্য কারণসমূহ: ব্রেইন স্ট্রোকের জন্য আরও বেশ কিছু কারণ থাকতে পারে। যেমন- উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চ কোলেস্টেরল, ডায়াবেটিস, অ্যাট্রিয়ালফাইব্রিলেশন বা অনিয়মিত হৃদস্পন্দন ইত্যাদির কারণেও ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে।

এনএনআর/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply