আমি ভোটার হলে নিজেই ঝামেলায় পড়ে যেতাম: পাপন

|

বিসিবি নির্বাচনের পর প্রেস ব্রিফিংয়ে নাজমুল হাসান পাপন।

বিসিবির নির্বাচনের অনানুষ্ঠানিক ফলাফল এতক্ষণে জানা হয়ে গিয়েছে। বিদায়ী বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন নির্বাচন পরবর্তী প্রেস ব্রিফিংয়ে জানালেন, খালেদ মাহমুদ সুজনের জয়লাভের খবরে অত্যন্ত খুশি তিনি। বলেন, এই ক্যাটাগরি থেকে সুজনের বিরুদ্ধে জয়লাভ করাটা ছিল অত্যন্ত কঠিন। নাজমুল আবেদিন ফাহিমও অত্যন্ত যোগ্য একজন প্রার্থী। আমি নিজেও ভোটার হলে সুজন এবং নাজমুল আবেদিন ফাহিমের মধ্যে একজনকে বেছে নিতে ঝামেলায় পড়ে যেতাম।

পাপন আরও বলেন, গত বোর্ডের সময়েও খালেদ মাহমুদ সুজনের কাজ ছিল অনেক বেশি। বিশেষ করে বয়সভিত্তিক ক্রিকেটের উন্নয়নে সুজনের অবদান অপরিসীম।

এবারে নতুন নির্বাচিত পরিচালকদের সাথে কাজ করতে কোন সমস্যা হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে পাপন বলেন, আগের বোর্ডের কাউকে নিয়ে কাজ করতেই আমার কোনো সমস্যা হয়নি। আর এবার যারা এলেন, তাদের কারো সাথে কাজ করতে আমার সমস্যা হবারও কোনো কারণ দেখি না। আর এ ব্যাপারটা ভেবেই এবার নির্বাচনে কোনো প্যানেল দেয়া হয়নি। কেউ যদি প্যানেলের বাইরে থেকে আসতো তবে পক্ষ-বিপক্ষের ব্যাপারটা থাকতো। আর এবার তো যারা জিতে আসবেন তারাই প্যানেল।

এই নির্বাচন সবার জন্য একদমই খোলা ছিল উল্লেখ করে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, এই নির্বাচন ছিল সম্পূর্ণ ওপেন। সাহস করে অনেকেই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। অনেকের সন্দেহ ছিল; তারা নির্বাচন করেননি। সামনে আরও অনেক বেশি মানুষ এই নির্বাচনে অংশ নেবেন, এই নির্বাচন আরও বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে, তেমন একটা ক্ষেত্রই যেন তৈরি হলো এবারের নির্বাচনে।

পোস্টাল ভোট, ইমেইল এবং সরাসরি এসে ভোট প্রদান- তিনটি অপশনই ছিল ভোটারদের সামনে। করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনেক কাউন্সিলর এবার ডাকযোগে এবং ইমেইলে ভোট দিয়েছেন।

এম ই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply