পাখিটি নিখোঁজ, সন্ধান দিলেই পাবেন ৫০ হাজার টাকা!

|

ছবি: সংগৃহীত।

বেড়াল বা কুকুর হারানোর পোস্টার সচরাচরই চোখে পড়ে। তবে বেশ কয়েকদিন ধরে ঢাকার গুলশান-১ এলাকায় বিভিন্ন ভবনের দেওয়ালে দেওয়ালে একটি পোস্টারে নজর আটকে যাচ্ছে বাসিন্দাদের। আর সেটি হলো একটি ‘পাখি হারানো বিজ্ঞপ্তি’।

সান কন্যুর প্রজাতির একটি পোষা টিয়া পাখি হারিয়েছে এই এলাকার বাসিন্দা ফাইজা ইব্রাহীম। পাখিটিকে কিউই নামে ডাকেন তিনি। বাংলাদেশে বর্তমানে পূর্ণবয়স্ক একজোড়া প্রজননক্ষম সান কন্যুরের দাম ৫০ হাজার টাকা। সেই হিসেবে একটির দাম ২৫ হাজার টাকা। তবে এই পাখিটিকে খুঁজে দিতে ইব্রাহীম ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা দিয়েছেন।

ইব্রাহীম জানান পোষা পাখিটি ছেড়ে দেয়া থাকতো। বাড়ির সবার প্রিয় হওয়ার কাঁধে কাঁধে ঘুরে বেড়াতো। রাতের বেলা শুধু খাঁচায় থাকে। গত ৩ অক্টোবর সকাল নয়টার পর থেকে পাখিটা নিখোঁজ।

এটিই প্রথম বার নয়। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো হারিয়েছে পাখিটিকে। তিনি জানান, প্রথমবার যখন হারিয়ে গেছে তখন আমি পোষ্টার দিয়েছিলাম। বাসার পাশেই কন্স্ট্রাকশনের কাজ চলছিল। তারা পেয়েছিল। আমি তাদেরকে ১৪ হাজার টাকা দিয়েছি। দ্বিতীয়বারেও পোষ্টার দিয়েছি। যারা পেয়েছিল তারা টাকা নিতে চায়নি। কিন্তু আমি উপহার দিয়েছি।

তবে পুরস্কারের মূল্য এবারে এতো বেশি কেন? ইব্রাহীমের কথায়, যারা পাখি পোষেন, তারা জানেন হারিয়ে গেলে এগুলোকে খুঁজে পাওয়া কতটা কষ্টকর। তাই পাখিটির মায়াতেই এমন মোটা অঙ্কের পুরস্কার ঘোষণা দিলেন তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply