কক্সবাজারে পৃথক অভিযানে আইস-ইয়াবা জব্দ, আটক ২

|

কক্সবাজারে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৩ কেজি মাদক আইসসহ ১ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‍্যাব।

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের টেকনাফ ও উখিয়া উপজেলায় অভিযান চালিয়ে তিন কেজি ভয়ংকর মাদক আইস এবং এক লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‍্যাব। এ সময় আইস ও ইয়াবা পাচারের অভিযোগে রোহিঙ্গাসহ ২ জন মাদক কারবারিকে আটক করা হয়েছে।

কক্সবাজার র‍্যাবের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ মুহাম্মদ শেখ সাদী জানান, শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় টেকনাফ পৌরসভার অলিয়াবাদ শাপলা চত্বর এলাকা থেকে ভয়ংকর মাদক আইস বা ক্রিস্টাল মেথসহ এক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। মাদকসহ আটক আব্দুল লতিফ (৬৪) রোহিঙ্গা হলেও টেকনাফ পৌর ৪নং ওয়ার্ড অলিয়াবাদ এলাকার জহির আহমদের ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিল।

তিনি জানান, কতিপয় মাদক কারবারি টেকনাফ পৌরসভাস্থ অলিয়াবাদ শাপলা চত্বর এলাকায় মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশে অবস্থান করার গোপন সংবাদ পায় র‌্যাব। উক্ত সংবাদে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল উক্ত স্থানে পৌঁছলে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে এক ব্যক্তি কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার হাতে থাকা শপিং ব্যাগ তল্লাশি করে সর্বমোট তিন কেজি ভয়ংকর মাদক আইস বা ক্রিস্টাল মেথ উদ্ধার করা হয়। যার মূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা। জিজ্ঞাসাবাদে আটক রোহিঙ্গা স্বীকার করেছে যে, সে বেশ কিছুদিন যাবত বিভিন্ন কায়দায় মাদক আইস বা ক্রিস্টাল মেথ টেকনাফের সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে টেকনাফ থানায় হস্তান্তর কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

অপর এক প্রেস রিলিজে র‍্যাবের তরফ থেকে জানানো হয়, শুক্রবার বিকেলে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের ময়নারঘোনা এলাকায় টেকনাফ থেকে আসা একটি সিএনজি অটোরিকশাকে র‍্যাবের একটি টিম গতিরোধ করলে সিএনজি অটোরিকশা থেকে দুই আরোহী ব্যাগ নিয়ে নেমে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় র‍্যাবের সদস্যরা ধাওয়া করে একজনকে ব্যাগসহ আটক করতে সক্ষম হয়। আটক যুবকের নাম আব্দুর রহিম প্রকাশ কালা মনিয়া। সে উখিয়া উপজেলার উত্তর রহমতের বিল গ্রামের মৃত কালু মিয়ার পুত্র। তার বস্তা তল্লাশি করে এক লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার এবং সিএনজি অটোরিকশা জব্দ করা হয়। অপর এক যুবক দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply