একটি মন্দির বাঁচাতে আদালতে মুসলিমরা

|

ছবি: সংগৃহীত।

অবৈধভাবে ভেঙে ফেলা হচ্ছিল একটি মন্দির। সেটিকে রক্ষা করতে হাই কোর্টের শরণাপন্ন হয়েছেন স্থানীয় মুসলিমরা। পাশাপাশি এই মন্দির ভাঙা নিয়ে যাতে এলাকায় কোনও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বা অশান্তির সৃষ্টি না হয়, সে জন্যও আদালতের কাছে আর্জি জানিয়েছেন তারা। খবর নিউজ ১৮ এর।

ঘটনা ভারতের দিল্লির। দিল্লির জামিয়া নগরের নুর নগর এলাকার এ ঘটনাকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক অনন্য উদাহরণ হিসেবে দেখছেন অনেকে।

জামিয়া নগর এলাকার ২০৬ নম্বর ওয়ার্ড কমিটির কিছু বাসিন্দা দিল্লির হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। সেখানে অভিযোগ করা হয়, অবৈধ উপায়ে এরই মধ্যে মন্দিরের ধর্মশালাটি ভেঙে ফেলা হয়েছে, রাতারাতি সরিয়ে ফেলা হয়েছে মন্দিরের ৮-১০টি মূর্তিও। অতি দ্রুত এই মন্দির ভেঙে সেখানে একটি বহুতল ভবন স্থাপনের পরিকল্পনা চলছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে। তাই মন্দিরটি রক্ষা করতে এবং এলাকায় সাম্প্রদায়িক অশান্তি প্রতিরোধে আদালতের সহায়তা চেয়েছেন স্থানীয় মুসলিমরা।

বিষয়টি এরই মধ্যে আমলে নিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট। আদালত পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন, কোনও অবৈধ উপায়ে যাতে মন্দিরটি ভাঙা না হয় এবং কোনও কিছু যাতে উচ্ছেদও করা না হয়। একই সাথে ওই অঞ্চলের আইন শৃঙ্খলা রক্ষা করতে পুলিশকে আরও নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশও দেয়া হয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply