বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় মেহেরপুর পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

|

বর্জ্য থেকে জৈব সার উৎপাদনের উদ্যোগ নিয়েছে মেহেরপুর পৌরসভা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বর্জ্য পরিশোধনাগারের পুরো কাজ শেষ হলে পরিচ্ছন্ন শহরের পাশাপাশি আবর্জনার দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি মিলবে। বর্জ্য থেকে উৎপাদিত সার বিক্রি হবে বাজারে, ব্যবহার হবে কৃষি কাজে এমনকি এসব বর্জ্য থেকে উৎপাদন হবে বিদ্যুৎও।

মেহেরপুর পৌরসভার বিভিন্ন রাস্তার পাশে, বাড়ির আঙিনায় এখানে সেখানে পড়ে থাকতো ময়লা আবর্জনা। ভোগান্তির শিকার হতো সাধারণ মানুষ। স্যানিটারি ল্যান্ড ফিল্ড ও পয়োবর্জ্য পরিশোধনাগার নির্মাণের ফলে এখন সেই দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে যাচ্ছে শহরবাসী।

এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে প্রতিদিন ৩০ টন আবর্জনা পরিশোধন করা যাবে বলে জানালেন মেহেরপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান রিটন। আর কর্মচারীরা জানালেন, পচনশীল ও অপচনশীল ময়লা আবর্জনা প্রত্যেকদিন শহর থেকেই সরবারাহ করা হচ্ছে। বর্জ্যগুলো পৃথক করে পরিশোধনাগারে নেওয়া হবে। আর সাধারণ মানুষ বলছেন, এভাবে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ফলে শহর আগের তুলনায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা সম্ভব হয়েছে।

পয়োবর্জ্য পরিশোধনাগারের নির্মাণের ফলে শহর পরিষ্কার পরিচ্ছন থাকবে সেই সাথে এই প্লান্ট থেকে উৎপাদিত সার বিক্রি করে পৌরসভার আয়ের উৎস তৈরি হবে। তবে শহরবাসীকে ময়লা আবর্জনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে না রেখে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার জন্যও পরামর্শ দিচ্ছেন পৌর মেয়র মাহাফুজুর রহমান রিটন।

প্রাথমিকভাবে পৌরসভার ২টি ওয়ার্ডকে পরীক্ষামূলকভাবে বেছে নেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বাকি ওয়ার্ডগুলোও অন্তর্ভুক্ত করা হবে এই প্রকল্পে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply