প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি বহরে হামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার

|

প্রতীকী ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়ী বহরে হামলায় জড়িত সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মো. তারিকুজ্জামান ওরফে কনককে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা মতিঝিল বিভাগ।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা সাতক্ষীরা জেলায় সমাবেশ করে কলারোয়া থানা হয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা করেছিলেন। পথিমধ্যে কলারোয়া থানাধীন তুলশীডাঙ্গায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা হয়।

হামলার দিন গ্রেফতারকৃত তারিকুজ্জামান সকাল ৯:৩০ টায় দলীয় থানা বিএনপির পার্টি অফিসে নেতাকর্মীর সাথে মিলিত হন। পার্টি অফিসে নেতাদের মাধ্যমে জানতে পারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কলারোয়া থানার তুলশীডাঙ্গা হয়ে ঢাকায় যাবেন। খবর পেয়ে বিভিন্ন নেতাকর্মীদের সাথে কলারোয়া থানার তুলশীডাঙ্গায় মেইন রোডে যায়। অতঃপর একটি যাত্রীবাহী বাস অন্যান্য নেতাকর্মীদের মাধ্যমে রাস্তার মাঝে দাড় করিয়ে প্রধান সড়কে যানজটের সৃষ্টি করে।

কিছুক্ষনের মধ্যে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ যানজট ছাড়ানোর জন্য আসেন এবং উক্ত বাসটি সরিয়ে ফেলেন। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি বহর চলে আসে এবং উক্ত যানজটে পতিত হয়। সে সময় অন্যান্য নেতাকর্মীদের সাথে প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি বহরে অতর্কিত হামলা করে।

উক্ত হামলায় প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি কৌশলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করলেও তৎকালীন এমপি পদপ্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মজিবুর রহমান এর গাড়িসহ অন্যান্য গাড়ি ব্যাপক ভাংচুর করে এবং বেশ কিছু নেতাকর্মী আহত হন।

এ ঘটনায় ২০১৪ সালে সাতক্ষীরা কলারোয়া থানায় বিস্ফোরক আইনে একটি মামলা হয়।

গোয়েন্দা মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার রিফাত রহমান শামীম, পিপিএম বলেন, আজ রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ৩ টায় মিরপুর একশ ফিট এলাকা হতে হামলায় জড়িত সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি তারিকুজ্জামানকে গ্রেফতার করে মতিঝিল জোনাল টিম।

আসামিকে আদালতে প্রেরণের আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে বলে জানান তিনি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply