মির্জাপুরে দুর্ভোগের অপর নাম কুমুদিনী হাসপাতাল রাস্তা

|

ছবি: সংগৃহীত

দুর্ভোগের অপর নাম টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের উপজেলা সদরের কুমুদিনী হাসপাতাল রোড সড়ক। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তায় পানি জমে যায়।

পানি জমে যাওয়ায় এই সড়ক দিয়ে চলাচলকারী রোগী, ডাক্তার, কুমুদিনী মেডিকেলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসীদের চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হয়। এদিকে মেয়র বলছেন খুব দ্রুতই সমস্যা সমাধান করা হবে।

দিনরাত ২৪ ঘণ্টাই এই সড়ক দিয়ে কুমুদিনী হাসপাতাল, কুমুদিনী উইমেনস মেডিকেল কলেজ, কুমুদিনী নার্সিং স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ভারতেশ্বরী হোমসসহ এলাকার হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে। তবে মির্জাপুর পুরাতন বাসস্ট্যান্ড থেকে কুমুদিনী হাসপাতাল রোডের প্রায় আধা কিলোমিটার পর্যন্ত রাস্তার পানি নিষ্কাশনের ড্রেন না থাকায় সামান্য বৃষ্টি হলেই পানি জমে যায়। ফলে ওই সড়ক দিয়ে চলাচলকারীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

উপজেলা প্রশাসন, এলজিইডি, পৌরসভা এবং কুমুদিনী পরিবার রাস্তাটির উন্নয়নের জন্য কোনো পদক্ষেপই নিচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেছেন সাধারণ ভুক্তভোগীরা। তিন পক্ষের রশি টানাটানির ফলে কুমুদিনী হাসপাতাল রোডের ড্রেনেজ ব্যবস্থা না হওয়ায় একটু বৃষ্টিতেই হয় হাটুপানি।

চলাচলকারী অনেকেই বলছেন, আমাদের হাসপাতাল এবং পুরাতন বাসস্ট্যান্ড যেতে হলে এই একটিমাত্র রাস্তাটি দিয়েই যেতে হয় তাই অতি জরুরিভাবে রাস্তাটির মেরামত করা দরকার।

মির্জাপুর পৌরসভার মেয়র বলেন, রাস্তাটির উন্নয়নের জন্য শহর উন্নয়ন প্রজেক্টে প্রকল্প দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ড্রেন নির্মাণের জন্য সার্ভে করা হয়েছে। বরাদ্দ পেলেই দ্রুত কাজ করা হবে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply