সাতক্ষীরায় ছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যায় অভিযুক্ত পার্থ মণ্ডল গ্রেফতার

|

ছবি: সংগৃহীত।

নিজস্ব প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরার দেবহাটায় স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ ও শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার একমাত্র আসামি পার্থ মণ্ডলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কাথণ্ডা সীমান্ত এলাকা থেকে ভারতে পালানোর সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে শুক্রবার রাতে নিহত ছাত্রীর বাবা শান্তি দাস বাদী হয়ে তার মেয়েকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় ডায়াগনস্টিক কর্মচারী পার্থ মণ্ডলকে একমাত্র আসামি করে দেবহাটা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পার্থ মণ্ডলকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে দেবহাটা থানার ভারপ্রাপ্ত পরিদর্শক (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ বলেন, মোবাইল ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে পলাতক পার্থ মণ্ডলের অবস্থান শনাক্ত করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। শনিবার সন্ধ্যার দিকে ভারতে পালানোর প্রস্তুতিকালে সদরের কাথণ্ডা সীমান্ত থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বর্তমানে তাকে সাতক্ষীরা ডিবি পুলিশ কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরবর্তীতে সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়ে রাতভর নিখোঁজ ছিল দেবহাটা উপজেলার টিকেট গ্রামের শান্তি দাসের মেয়ে গাভা একেএম আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী পূর্ণিমা দাস। পরদিন শুক্রবার সকালে একই এলাকার তারক মণ্ডলের জনমানবহীন পরিত্যক্ত বাড়ির সবজি বাগান থেকে পূর্ণিমা দাসের বিবস্ত্র লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

লাশ থেকে কিছু দূরে পড়ে থাকা ভিকটিমের বই-খাতা, জুতা ও গোপনে ব্যবহার করা পূর্ণিমার একটি মোবাইল ফোনও আলামত হিসেবে উদ্ধার করা হয়। যার ক্ষুদে বার্তায় দেখা যায়, নিখোঁজের আগ মুহূর্তে পূর্ণিমাকে ওই পরিত্যক্ত বাড়ির কাছাকাছি আসার জন্য এসএমএস করেছিল তার প্রেমিক পার্থ মণ্ডল।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply