হবিগঞ্জে জামাই-শ্বশুরের টেঁটাযুদ্ধ, আহত ৩০

|

ছবি: সংগৃহীত।

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জামাই ও শ্বশুরের দ্বন্দ্বের জের ধরে দুই পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। এতে নারীসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে।

শনিবার আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের বাসিন্দা মাহতাবুর রহমান এবং তার জামাই গ্রিস প্রবাসী মোতাক্কির মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। জামাই এবং শ্বশুর তারা একই গোষ্ঠীর। তাদের উভয়পক্ষের লোকজন বিদেশে অবস্থান করে। জামাই নিজেও গ্রিসে থাকে। গ্রামের কোনো বিষয়ে শ্বশুর একপক্ষে থাকলে জামাই অন্যপক্ষে থাকে। নির্বাচনেও তারা একে অপরের বিরুদ্ধে থাকে। এ নিয়েই মূলত তাদের বিরোধ চরম আকার ধারণ করেছে।

শুক্রবার রাতে মাহতাবুর রহমান থানায় অভিযোগ করেন, তার মেয়েকে জামাতা আটকে রেখে নির্যাতন করছেন। এরপর পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠে। শনিবার জামাই ও শ্বশুরের পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে মহিলাসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় বেশ কয়েকজনকে সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় কয়েকজনকে গুরুত্বর অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নূরুল ইসলাম বলেন, জামাই-শ্বশুরের মধ্যে বিরোধ চলছে দীর্ঘদিন ধরে। তাদের বিরোধের জের ধরেই সংঘর্ষ হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেনি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply