পটুয়াখালীতে জেলে মৃত্যুর ঘটনায় নৌ পুলিশের ৪ সদস্য প্রত্যাহার

|

জেলে মৃত্যুর ঘটনায় নৌ পুলিশের ৪ সদস্য প্রত্যাহার।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নৌ পুলিশের মারধরে সুজন হাওলাদার নামের এক জেলের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পায়রা বন্দর নৌ পুলিশের ৪ সদস্যকে ক্লোজড করে নৌ-পুলিশ বরিশাল অঞ্চল অফিসে সংযুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নৌ পুলিশ পটুয়াখালী জোনের সহকারী পুলিশ সুপার মো. আহসান হাবীব। প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সদস্যরা হলো পায়রা বন্দর নৌ পুলিশের এএসআই মামুন, কনস্টেবল রিয়াজ, সুমন ও ছাত্তার।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার চর বালিয়াতলী ঢোস এলাকা থেকে ৫ জেলে একটি মাছধরা ট্রলারসহ রাবনাবাদ নদীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। এসময় ট্রলারে নিষিদ্ধ জাল রয়েছে সন্দেহে তাদের ধাওয়া করে পায়রা বন্দরের নৌ পুলিশবাহী একটি ট্রলার। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী ধাওয়ার পর জেলেরা ফের ঢোস এলাকায় পৌঁছলে ৪ জেলে পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও সুজনকে ধরে ফেলে নৌ পুলিশের সদস্যরা। পরে তাকে মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে ওই ৪ পুলিশ সদস্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে এলাকাবাসী।

প্রায় ৬ ঘণ্টা প্রচেষ্টার পর গতকাল সন্ধ্যায় ওই ৪ পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে জেলা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন। যদিও পুলিশ দাবী করছে তারা সুজনকে মারধর করেনি। নিহত সুজন লালুয়া ইউনিয়নের সত্তার হাওলাদা‌রের ছে‌লে।

নিহত সুজনের পরিবারের অভি‌যোগ, নৌ পুলিশ সদস্য সুজন‌কে ধ‌রে মারধর করায় তার মৃত্যু হ‌য়ে‌ছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply