আফগান নারীদের শিক্ষা প্রসঙ্গে ইমরান খানের মন্তব্য, ‘এটি অনৈসলামিক’

|

ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানে নারীদের শিক্ষা বন্ধ করে দিলে সেটি ইসলামের নীতি অনুসরণ করা হবে না বলে মন্তব্য করছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসিতে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

এ নিয়ে ইমরান খান বলেন, নারীদের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত হবে না তালেবান সরকারের। কারণ ইসলাম এটি বলে না। তারা এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিলে তা হবে অনৈসলামিক।

নবগঠিত তালেবান সরকারকে কেমন দেখতে চান, বিবিসির সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে ইমরান খান বলেন, নতুন নেতৃত্বে যারা আসছেন তাদের মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকতে হবে। পাশাপাশি, আফগানিস্তান যেন সন্ত্রাসবাদের আঁখড়া হয়ে না ওঠে সে দিকেও কঠোর হতে হবে।

তবে নারীদের শিগগিরই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার সুযোগ করে দেবে তালেবান, এমনটিই বিশ্বাস ইমরান খানের। তিনি বলেন, নারীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ঢুকতে দেবো না, এমন চিন্তাধারা ইসলামের নয়।

উল্লেখ্য, নারীদের শিগগিরই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হবে, এমন ইঙ্গিত এসেছে খোদ তালেবান সরকারের কাছ থেকেই। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) তালেবান মন্ত্রিসভার বাকি সদস্যদের নাম ঘোষণাকালে তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ জানান, আমরা সবকিছু চূড়ান্ত করছি…এটি যত দ্রুত সম্ভব ঘটবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply