বন্ধকি সম্পত্তির মূল্য বেশি দেখালে ব্যাংকারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

|

ব্যাংক ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পদ বা জামানত নিয়ে বড় ধরনের জালিয়াতির ঘটনা ধরা পরার পরই এমন সিদ্ধান্ত নিলো বাংলাদেশ ব্যাংক।

ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পদের মূল্য বাজার দরের চেয়ে বেশি দেখালে জড়িত ব্যাংকারের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। ব্যাংক ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পদ বা জামানত নিয়ে বড় ধরনের জালিয়াতির ঘটনা ধরা পরার পরই এমন সিদ্ধান্ত নিলো বাংলাদেশ ব্যাংক।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে এমন সিদ্ধান্ত জানিয়েছে।

কোনো প্রতিষ্ঠান ঋণখেলাপি হলে দেখা যায়, এর বিপরীতে যেসব জামানত রাখা হয়েছে সেগুলো ভুয়া বা বাজার মূল্যের চেয়ে অনেক বেশি দেখানো হয়েছে। ফলে বন্ধকি সম্পদ বিক্রি করেও ঋণের টাকা আদায় হচ্ছে না। অথচ এসব সম্পদের মূল্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে ব্যাংকের একাধিক কর্মকর্তা জড়িত। অনেক ব্যাংক আলাদা অডিট ফার্ম দিয়েও জামানতের সম্পদের মূল্য নির্ধারণ করেন। তারপরও দেখা যায় জামানত নিয়ে বড় ধরনের জালিয়াতি হচ্ছে। ঋণটি খেলাপি হলে তা আদায় করতে গিয়ে জালিয়াতির ঘটনা ফাঁস হয়ে যাচ্ছে। তখন ঋণের টাকা আর আদায় করা সম্ভব হচ্ছে না। এভাবে বাড়ছে আদায় অযোগ্য খেলাপি ঋণের পরিমাণ।

এসব কারণে ঋণের বিপরীতে বন্ধকি জামানত নিয়ে জালিয়াতি বন্ধ করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই নতুন নীতিমালা জারি করেছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply