রাসেল ও শামীমার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন

|

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির সিইও মোহাম্মদ রাসেল ও তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন প্রতিষ্ঠানটিতে বিনিয়োগকারীরা।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) মহানগর হাকিম আদালতের সামনে এ মানববন্ধন করেন তারা। বিক্ষোভকারীদের দাবি, ইভ্যালির সিইও রাসেল তাদের অর্থ ফেরত দেয়ার জন্য ছয় মাসের সময় চেয়েছিলেন। এই সময় সাধারণ বিনিয়োগকারীরা রাসেলকে দিয়েছেন বলেও দাবি করেন তারা।

এরই মধ্যে মোহাম্মদ রাসেলকে গ্রেফতারে বিনিয়োগকারীদের অর্থ ফেরত পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। মানববন্ধনকারীরা বলেছেন, রাসেলকে মুক্তি দিয়ে ব্যবসা করার সুযোগ দিলে তারা তাদের বিনিয়োগের অর্থ বা পণ্য ফিরে পাবেন।

প্রসঙ্গত, তিন দিনের রিমান্ড শেষে আজ আদালতে নেয়া হবে ইভ্যালির সিইও মোহাম্মদ রাসেল এবং চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে।

এর আগে, বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে রাসেলের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে র‍্যাব। প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাৎ মামলায় গ্রেফতারের পর তাদের দুজনকে র‍্যাব সদর দফতরে রাখা হয়। র‍্যাবের সংবাদ সম্মেলনের পর রাসেল ও তার স্ত্রীকে গুলশান থানায় সোপর্দ করা হয়। এরপর তাদের আদালতে হাজির করা হলে প্রত্যেককে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরেই ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিরুদ্ধে গ্রাহকদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশও করেছেন গ্রাহকরা।

এর আগে, ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে গুলশান থানায় আরিফ বাকের নামের এক ভুক্তভোগী মামলার আবেদন করেন ইভ্যালির বিরুদ্ধে সকালে মামলাটি রুজু হয়। মামলার আবেদনে ভুক্তভোগী জানান, গত জুন মাসে কয়েক দফায় পণ্যের কার্যাদেশ দিয়ে সব মূল্য পরিশোধ করা হয়। সাত থেকে ৪৫ দিনের মধ্যে পণ্য সরবরাহের কথা থাকলেও তিন মাসেও তা দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেন তিনি। এ নিয়ে ইভ্যালি অফিসে কয়েকবার যোগাযোগ করা হলে প্রতিষ্ঠানটির শীর্ষ কর্মকর্তারা দুর্ব্যবহার করেন বলেও আবেদনে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply