ভারতের সর্বোচ্চ আদালতকে ‘পক্ষপাতদুষ্ট’ বললেন কঙ্গনা!

|

ছবি: সংগৃহীত

ভারতের নামকরা সংগীত শিল্পী জাভেদ আখতারের দায়ের করা মানহানির মামলার শুনানির জন্য সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) আদালতে হাজিরা দিয়েছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। তবে জামিনযোগ্য মামলায় কেনও প্রতিবার তাকে উপস্থিত থাকতে হবে, এমন প্রশ্ন সরাসরি আদালতের কাছে তোলেন এই অভিনেত্রী। পাশাপাশি অন্য আদালতে মামলা স্থানান্তরিত করার আবেদনও জানান কঙ্গনা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

অভিনেত্রীর দাবি, আদালতের ওপর থেকে বিশ্বাস হারিয়েছেন তিনি। আন্ধেরি আদালতে মামলার শুনানিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন না। তার আইনজীবী বলেন, অভিনেত্রী মনে করেন আদালত পক্ষপাতদুষ্ট।

এর আগে, জাভেদের করা মানহানি মামলা বহাল রেখে কঙ্গনার পাল্টা আবেদন বাতিল করে দেন মুম্বাই হাইকোর্ট। হাজিরা নিয়েও কড়াকড়ি করেন আদালত। ‘কুইন’ ছবির নায়িকার বক্তব্যের পরেই দায়ের হওয়া মামলার শুনানি ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত মুলতবি ঘোষণা করেন মুখ্য মহানগর হাকিম।

প্রসঙ্গত, কঙ্গনার আইনজীবী রিজওয়ান সিদ্দিকি চলতি বছরের শুরুর দিকে আন্ধেরি মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে শুরু হওয়া মানহানি মামলাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন। অন্য দিকে, জাভেদের আইনজীবী জয় ভরদ্বাজ হাইকোর্টকে জানিয়েছেন, গীতিকারের অভিযোগের ভিত্তিতে ম্যাজিস্ট্রেট কঙ্গনার সাক্ষাৎকারের অংশগুলো দেখেন এবং পুলিশি তদন্তের নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, এক টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তার বিরুদ্ধে মানহানিকর ও ভিত্তিহীন মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা, এই অভিযোগ জানিয়ে জাভেদ গত বছরের নভেম্বরে কঙ্গনার বিরুদ্ধে আন্ধেরি মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ফৌজদারি মামলা দায়ের করেন।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply