চাকরি হারানোর শঙ্কায় এনআইডি প্রকল্পের ৭৩ টেকনিক্যাল এক্সপার্ট

|

চাকরি হারানোর শঙ্কায় আছেন জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরির জন্য আইডেনটিফিকেশন সিস্টেম ফর এনহ্যান্সিং একসেস টু সার্ভিসেস (আইডিইএ) প্রকল্পে কাজ করা ৭৩ টেকনিক্যাল এক্সপার্ট। নির্বাচন কমিশনের অধীনে থাকার দিনগুলোতে তাদের চাকরি রাজস্ব খাতে স্থায়ীকরণের দাবি জানিয়ে আসা এই কর্মীরা এখন চাকরি টেকানো নিয়েই দুশ্চিন্তা করছেন। এনআইডি বিষয়ক সকল কার্যক্রম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চলে যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে। আর তাতেই তীব্র হয়েছে প্রকল্পের এই ৭৩ কর্মীর শঙ্কা।

গত ১০ জুলাই, ২০১৩ নির্বাচন কমিশন সভা নং-৪৬/২০১৩ এর কার্যবিবরণীতে এবং পরবর্তীতে গত ১০ অক্টোবর ২০১৯ জাতীয় পরিচয়পত্র, ভোটার তালিকা এবং নির্বাচন ব্যবস্থাপনায় তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োগ কমিটির সভার কার্যবিবরণীতে আইডিইএ প্রকল্পের দক্ষ জনবলকে আত্মীকরণের প্রস্তাব বিশেষ চিঠি আকারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর পাঠানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

উক্ত সিদ্ধান্তসমূহ ও প্রয়োজনীয়তার আলোকে গত ১১ মে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে আইডিইএ প্রকল্পের ৭৩ জনবলকে সমজাতীয় পদ সৃষ্টি করে রাজস্বখাতে আত্মীকরণের জন্য বিশেষ সামারি প্রস্তুত করে নির্বাহী অনুমোদনের প্রত্যাশায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ চাওয়া হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, আইনের আওতায় তাদের চাকরি রাজস্ব খাতে স্থায়ীকরণের সুযোগ নেই। তবে যৌক্তিক বিবেচনায় তাদের কথা ভাবা যেতে পারে বলে জানানো হয়। 

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সরাসরি জানিয়ে দেয়, প্রচলিত আইনে তাদের রাজস্বখাতে স্থায়ীভাবে নেয়ার সুযোগ নেই। কারণ তারা প্রকল্পের আওতাভুক্ত। নির্বাচন কমিশন সূত্র বলছে, এই প্রকল্পের মেয়াদ সম্প্রতি আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়েছে ই‌তোম‌ধ্যে যার প্রায় তিন মাস শেষ হ‌তে চল‌ছে। এ নিয়ে ক‌য়েক ধাপে তাদের মেয়াদ বাড়লো। আর ২ মাসের মতো তাদের চাকরির মেয়াদ আছে। বর্তমান বাস্তবতায় এটি দীর্ঘমেয়াদের বাড়ার সুযোগ কম। যদিও এনআই‌ডি সেবা কার্যক্রম চলমান রাখতে এদের উপযোগিতা এখনও বিদ্যমান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ৭৩ সদস্যের একজন যমুনা নিউজকে জানান, আমরা কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে রিমোট একসেসের মাধ্যমে বিভিন্ন উপজেলা সার্ভারের টেকনিক্যাল সমস্যা সমাধান করি। কখনো আবার ফিল্ডে গিয়ে সমাধান করতে হয়। সারাদেশে ৫১৯টি উপ‌জেলা সার্ভার স্টেশন রক্ষণাবেক্ষণ, নেটওয়া‌র্কিং, সার্ভার মেরামত, ক‌মিশন কর্তৃক ভোটার নিবন্ধন এপ্লিকেশন সিস্টেমের কা‌রিগ‌রি সাইট‌টি দেখভা‌লের দা‌য়িত্ব এই ৭৩ জন প্রক‌ল্পের দক্ষ ও কা‌রিগ‌রি জন‌বলের’।

তিনি আরও বলেন, আমরা ৭৩ জন যদি একসাথে কাজ করা বন্ধ করে দিই তাহলে সমগ্র বাংলাদেশের এনআইডি প্রকল্পের সকল কাজ স্থগিত হয়ে যাবে।

দীর্ঘ সময় এনআইডি প্রকল্পে যুক্ত ১৪ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন এই ৭৩ টেকনিক্যাল এক্সপার্ট চান তাদের চাকরি স্থায়ীকরণ করা হোক। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন তারা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply