পুরুষ হলে ৪০০ খেলা, নারী হলে শূন্য

|

ছবি: সংগৃহীত

শরিয়াহ আইনের সাথে সাংঘর্ষিক নয়, এমন ৪০০ খেলা অনুমোদন করেছে তালেবান। তবে এসব খেলাই পুরুষদের জন্য। নারীদের জন্য কী কী খেলা থাকছে, এর উত্তর দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন তালেবান নতুন ক্রীড়াপ্রধান।

আফগানিস্তানের শাসন ব্যবস্থায় তালেবান আসার পর ঘোষিত হয়েছে বেশ কিছু নতুন ঘোষণা। এর মধ্যেই গত মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) আফগানিস্তানের নতুন ক্রীড়া প্রধান বশির আহমেদ রুস্তমজাই জানান, শরিয়াহ সমর্হিত 800 খেলা খেলতে পারবে পুরুষরা। নারীদের খেলার অধিকারের ব্যাপারে তাদের সিদ্ধান্ত জানতে চাইলে এএফপিকে তিনি বলেন, দয়া করে আমাকে নারীদের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করবেন না।

কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র ও ছাত্রী। ছবি: সংগৃহীত

কুংফু ও কুস্তিতে চ্যাম্পিয়ন রুস্তমজি পেয়েছেন আফগানিস্তানের খেলাধুলা ও শারীরিক শিক্ষার ডিরেক্টর জেনারেল হিসেবে নিয়োগ। দ্বিতীয় মেয়াদে তালেবান ক্ষমতায় আসার পর রুস্তমজি বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত না কোনো খেলা শরিয়াহ আইনের পরিপন্থী হয় ততক্ষণ আমরা তা নিষিদ্ধ করবো না। ৪০০ রকম খেলাধুলার অনুমোদন রয়েছে এখানে।

তিনি জানান, আফগানিস্তানে নারীদের খেলাধুলায় অংশ নেয়ার বিষয়ে তালেবান শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে নির্দেশের অপেক্ষায় আছেন তিনি।

রুস্তমজির মতে, পুরুষদের জন্যও খুব একটা পাল্টাবে না খেলাগুলো। যেমন, ফুটবল বা বক্সিং খেলতে গেলে শর্টস হতে হবে হাঁটু পর্যন্ত লম্বা। তিনি বলেন, শর্টসের দৈর্ঘ্য বাড়লে খেলার ধরনে তেমন কোনো প্রভাব পড়ে না।

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply