১২ ঊর্ধ্ব শিক্ষার্থীদের করোনা টিকার আওতায় আনা হবে: প্রধানমন্ত্রী

|

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

১২ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সী ছাত্র-ছাত্রীদের করোনা টিকার আওতায় আনার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতীয় সংসদে প্রশ্নের উত্তরে এ কথা জানান তিনি।

বুধবারের (১৫ সেপ্টেম্বর) সংসদ অধিবেশন শুরু হয় সকাল সাড়ে দশটায়। স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে অংশ নেন সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদকে তিনি কোভিড এর টিকা প্রদান নিয়ে সরকারের পরিকল্পনার কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী সংসদকে জানান পর্যায়ক্রমে আশি শতাংশ জনগোষ্ঠীকে টিকার আওতায় আনা হবে। এবছরের শেষ নাগাদ দেয়া হবে ৫০ শতাংশ মানুষকে। সংসদে টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নের উত্তরে শেখ হাসিনা বলেন, ধারাবাহিকভাবে ১২ বছর বয়স পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীদেরও কোভিড ১৯ এর ভ্যাকসিন দেয়ার চিন্তা করছে সরকার।

এছাড়াও অধিবেশনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, সাড়ে ১৬ কোটি ডোজ করোনার টিকা কেনার অর্ডার দেয়া হয়েছে। এসময় তিনি জানান, বিমানবন্দরের পিসিআর ল্যাব বসানোর দায়িত্ব প্রবাসী মন্ত্রণালয়ের।

আলোচনাকালে সংসদ সদস্যরা স্বাস্থ্যখাতে নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন। করোনা চিকিৎসা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তারা।

জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা চিকিৎসায় সফল হয়েছে সরকার। পর্যায়ক্রমে সকল নাগরিককে টিকা দেয়ার পরিকল্পনার কথাও তুলে ধরেন তিনি। আরেক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, প্রবাসীদের জন্য বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের দায়িত্ব প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের। তিনি আশাব্যক্ত করেন যে, আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব স্থাপন হবে।

এসময় মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা নিয়ে আলোচনা করেন সংসদ সদস্যরা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, প্রয়োজনীয় লোকবল নিয়োগের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার।

অধিবেশনে মেডিক্যাল কলেজেস গভর্নিং বডিজ রিপিল বিল ২০২১, মেডিক্যাল ডিগ্রিজ রিপিল বিল ২০২১, ও বাংলাদেশ শিশু হাসপাতাল ও ইন্সটিটিউট বিল ২০২১ বিল পাশ করা হয়। শিক্ষামন্ত্রী কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিল ২০২১ সংসদে উত্থাপন করেন। বিলটি সর্বসম্মতিক্রমে পাশ করা হয়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply