হাতের লেখা নিয়ে ফের আলোচনায় পরীমণি, ব্যাখ্যায় যা বললেন

|

পরীমণির হাতের তালুতে মেহেদী দিয়ে লেখা সেই বার্তা।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় হাজিরা দিতে বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে যান চিত্রনায়িকা পরীমণি। হাজিরা দিতে গিয়ে আবারও বার্তা দিলেন আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি। এবার পরীমণির হাতের তালুতে মেহেদী দিয়ে একটি মধ্যাঙ্গুলির ছবি আঁকা ছিল। এবং তার নিচে লেখা ছিল ‘মি মোর’। এর আগে, তিন দফা রিমান্ড শেষে কারামুক্তির দিন তার হাতে লেখা ছিল, ‘ডোন্ট ও লাভ চিহ্ন, এরপর মি বিচ’। যার পূর্ণরূপ দাঁড়ায় ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’।

পরীমণির আজকের নতুন বার্তা নিয়ে ভক্ত ও সমালোচকদের মধ্যে চলছে নানান আলোচনা। অনেকেই মনে করছেন, আগের স্লোগান ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’ আর আজকের বার্তাটি বিপরীত। তবে পরীমণির দাবি তিনি কড়া বার্তাই দিতে চেয়েছেন।

গণমাধ্যমে এ আলোচিত নায়িকা বলেন, অনেকেই আমার বার্তাটি ঠিক বুঝতে পারছেন না, ভুল বুঝছেন।সবাই ভাবছেন আমি লিখেছি ‘লাভ মি মোর’। আসলে তো আমি লিখেছি ‘*** মি মোর’।

এর আগে ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’ বার্তার ব্যাখ্যায় পরীমণি জানিয়েছিলেন, যারা আমার সাথে দু’মুখো আচরণ করেছেন, যারা আমার সুসময় পাশে ছিল কিন্তু দুঃসময়ে পাশে ছিল না, তাদের উদ্দেশ্যেই ওই বার্তা।

প্রসঙ্গত, গত ৪ আগস্ট রাতে প্রায় চার ঘণ্টার অভিযান শেষে বনানীর বাসা থেকে পরীমণিকে তার সহযোগীসহ আটক করে র‌্যাব। এ সময় পরীমণির বাসায় বিভিন্ন ধরনের মাদক পাওয়া গেছে বলে জানায় র‍্যাব। পরদিন ৫ আগস্ট র‌্যাব বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পরীমণি ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা করে।

এরপর তিন দফায় মোট সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয় পরীমনিকে। প্রথম দফায় ৫ আগস্ট চার দিন, দ্বিতীয় দফায় ১০ আগস্ট দুদিন এবং ৩য় দফায় ১৯ আগস্ট একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয় তার। বর্তমানে তিনি জামিনে রয়েছেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply