ট্রাম্পের বিরুদ্ধে পর্ন তারকার মামলা

|

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামে মামলা ঠুকে দিয়েছেন পর্ন তারকা স্টর্মি ক্লিফোর্ড। ‘ঘুষের চুক্তি বাতিল’-ঘোষণা চেয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। নির্বাচনের সময় ক্লিফোর্ডসহ কয়েকজন নারীর সাথে অন্তরঙ্গতার খবর গণমাধ্যমে আসা ঠেকাতে আইনজীবীর মাধ্যমে ট্রাম্প তাদের ঘুষ দিয়েছেন বলে অভিযোগ আছে। যদিও ঘুষের সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ট্রাম্প।

মামলার অভিযোগপত্রে স্টর্মি বলেছেন ২০০৬-০৭ সালের দিকে ট্রাম্পের সাথে তার ‘অন্তরঙ্গ’ সম্পর্ক ছিল। ট্রাম্প রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন পাওয়ার পর ক্লিফোর্ড সবকিছু গনমাধ্যমে জানাতে চেয়েছিলেন। তখন এ খবর ট্রাম্পের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার নিশ্চিতভাবে ধাক্কা খেতো। তাই ট্রাম্প তার আইনজীবী মাইকেল কোহেনের মাধ্যমে ক্লিফোর্ডকে মুখ বন্ধ রাখার জন্য ১৩ লাখ ডলার ঘুষ দেয়ার চুক্তি করেন।

কথা ছিল চুক্তিপত্রে ট্রাম্প এবং ক্লিফোর্ড পেগি প্যাটারসন এবং ডেভিড ডেনিসন ছদ্মনামে স্বাক্ষর করবেন। এতে ক্লিফোর্ড স্বাক্ষর করলেও ট্রাম্প আর পরে তা করেননি। ক্লিফোর্ড মামলার অভিযোগপত্রে এই চুক্তিনামা সংযুক্ত করে দাবি করেছেন যেহেতু ট্রাম্প ঘুষের এই চুক্তি স্বাক্ষর করেননি তাই এটির কোন কার্যকারিতা নেই। অর্থাৎ গোপনীয়তা রক্ষার জন্য আইনগতভাবে বাধ্য নন।

তবে ট্রাম্পের আইনজীবী কোহেন ট্রাম্পের নাম মুখে না নিয়ে গণমাধ্যমকে জানান গতমাসেই নির্ধারিত পরিমান টাকা ক্লিফোর্ডকে দেয়া হয়েছে। কোহেন আরও বলেছেন ১৩ লাখ ডলার তিনি নিজে থেকে দিয়েছেন কেউ তাকে এই টাকা পুষিয়ে দেয়ার আশ্বাস দেয়নি। তবে হোয়াইট হাউস ঘুষ দেয়ার চুক্তি কিংবা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগই এড়িয়ে গেছে।









Leave a reply