চাঁপাইনবাবগঞ্জে কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ৮

|

ষ্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ 

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশের কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে ১৫ লাখ টাকাসহ ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে জালিয়াত চক্রের এক হোতাও রয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুর আড়াইটায় পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

আটককৃতরা হলো, এই চক্রের মুল হোতা রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার সাহাপুর গ্রামের সালাম মণ্ডলের ছেলে সেতু মণ্ডল, তার সহযোগী শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার পাঠাকাটা গ্রামের মোঃ আবু সুফিয়ানের ছেলে মোকারম হোসেন, পুলিশ নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেয়া দুই পরীক্ষার্থী চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার চৌকা গ্রামের পবন শিংহের ছেলে ফুলচাঁন সিংহ, একই উপজেলার ভুটিটোলা গ্রামের গাজরুল ইসলামের ছেলে আমিন আলী, চক্রের সদস্য শিবগঞ্জ উপজেলার চৌকা গ্রামের মৃত আবু বাক্কারের দুই ছেলে মনিরুল ইসলাম ও আবদুস সালাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের মসজিদপাড়ার মোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী তাজেরুল বেগম ও শিবগঞ্জের পুকুরিয়া গ্রামের মৃত তসির উদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন।

পুলিশ সুপার জানান, ৩ মার্চ থেকে ৫ মার্চ ভোর পর্যন্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও বগুড়ায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটক আট জনের মধ্যে ছয়জন চাঁপাইনবাবগঞ্জের। বাকি দুজনের বাড়ি রংপুর ও শেরপুরে। আটককৃতদের মধ্যে রয়েছেন জালিয়াত চক্রের হোতা রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার সাহাপুরের সেতু মণ্ডল ও তার সহযোগী শেরপুরের নকলা উপজেলার পাঠাকাটা গ্রামের মোকারম হোসেন।

তিনি আরও জানান, লিখিত পরীক্ষায় অধিক নম্বর পাওয়া দুই প্রার্থী মৌখিক পরীক্ষায় এসে আশানুরুপ উত্তর দিতে না পারায় তাদের সন্দেহ হয়। পরে তাদের আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করে জালিয়াত চক্রের সন্ধান পায় পুলিশ। ওই চক্রটি টাকার বিনিময়ে চাকরি প্রার্থীর পরিবর্তে মেধাবী অন্য কাউকে লিখিত পরীক্ষায় বসানোর ব্যবস্থা করে দেন। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply