নারী মেম্বারকে যৌন নিপীড়নের চেষ্টা দুই ইউপি সদস্যের

|

কুমিল্লা ব্যুরো:

কুমিল্লার চান্দিনায় এক মহিলা ইউপি সদস্যকে যৌন নিপীড়নের চেষ্টা চালিয়েছেন একই ইউপির অন্য দুই পুরুষ সদস্য। গতকাল রোববার রাতে ওই নারীর ঘরে ঢুকে নিপীড়নের চেষ্টাকালে তার চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে উদ্ধার করেন। এসময় জনতা পিটুনি দিয়ে দুই নিপীড়ককে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, চান্দিনার মাইজখার ইউনিয়ন পরিষদের দুই সদস্য শাহাজান ও আব্দুল করিম দীর্ঘ দিন ধরেই সহকর্মী ওই নারীকে উত্যক্ত করে আসছিলেন। রোববার রাতে উভয়ে পরিকল্পনা করে নারী সদস্যকে ফোন করে বলেন, ‘তার সাথে জরুরি আলাপ আছে, এজন্য বাড়িতে আসতে হবে।’

তখন নারী সদস্য তাদেরকে বাড়িতে না এসে পরের দিন ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে কথা বলবেন বলে জানান। কিন্তু শাহাজান ও আব্দুল করিম তা উপেক্ষা করে রাত সাড়ে ১০টায় নারী সদস্যের বাড়িতে ঢুকেন। ঘরে তাকে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে নারীর চিৎকার শুরু করলে প্রতিবেশিরা এসে অভিযুক্তদের আটক করে গণপিটুনি দেয়।

ভুক্তভোগী ওই নারী জানিয়েছেন, চিৎকার করলে অপরাধীরা তাকে প্রাণনাশের হুমকিও দেয়।

চান্দিনা থানার ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। আটক দুই ইউপি সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার জন্য স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply